সন্তানের শিক্ষাজীবন বা ভবিষ্যৎ বিবেচনায় রেখে একটি বিমা পলিসি চালু করেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জীবন বিমা কোম্পানি মেটলাইফ। পলিসিটির নাম ‘শিক্ষা নিরাপত্তা বিমা প্লাস’। এটি এমন এক পলিসি, যা একসঙ্গে মা–বাবা ও সন্তান—তিনজনেরই নিরাপত্তা দেয়। এক পলিসিতে তিনজনই সুবিধা পায়, এমন পলিসি সাধারণত বিরল। 

সন্তানের বয়স ৩০ দিন হলেই মা–বাবা বা অভিভাবকেরা এই পলিসির জন্য আবেদন করতে পারেন। ৩০ দিন থেকে ৫ বছর বয়সী সন্তানদের জন্য ১ লাখ থেকে ১৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিমা অঙ্কের পলিসি করা যায়। সন্তানের বয়স ৬ বছর থেকে ১৫ বছর হলেও পলিসি করা যায়, সে ক্ষেত্রে বিমা অঙ্ক হবে ১ লাখ থেকে ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত। পলিসি ১০ থেকে ২১ বছর পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের হতে পারবে। তবে সন্তানের বয়স ও পলিসির মেয়াদের যোগফল ২৫ বছরের বেশি হতে পারবে না। 

গ্রাহক হওয়ার যোগ্যতা

‘শিক্ষা নিরাপত্তা বিমা প্লাস’ পলিসির গ্রাহক সবাই হতে পারবেন না। মা–বাবা বা আইনসম্মত অভিভাবককে ২১ থেকে ৫৫ বছর বয়সী হতে হবে। অর্থাৎ, বয়স ৫৫ বছর পার হলেই এ পলিসির জন্য কেউ আবেদন করতে পারবেন না। বয়স, স্বাস্থ্য ও পেশা পরিবর্তনের কারণে পলিসি করার যোগ্যতাও হারাতে পারেন কেউ কেউ। তাই পলিসি নেওয়ার সিদ্ধান্ত যতটা সম্ভব কম বয়সে নেওয়া ভালো। এতে প্রিমিয়ামের পরিমাণও কম হয়। 

মেয়াদ বাছাইয়ে বিবেচনা

শিক্ষা ব্যয় দিন দিন বেড়েই চলেছে। সন্তানের ভবিষ্যৎ চিন্তা করে পলিসির ক্ষেত্রে এমন মেয়াদই বেছে নিতে হবে, যাতে সন্তানের উচ্চশিক্ষার সময় কাজে লাগে। নাহলে সন্তানের উচ্চশিক্ষার সময় প্রয়োজনীয় অর্থসংস্থান করা কঠিন হয়ে পড়ে। মেটলাইফের অন্য বিমাসুবিধার মতো এই পলিসির বিপরীতে দেওয়া সুবিধাও শর্তহীন। পলিসির মেয়াদপূর্তিতে অর্থের কোনো পরিবর্তন হয় না। মেয়াদপূর্তিতে কোনো টাকাও কেটে নেওয়া হয় না। 

মেয়াদপূর্তিতে টাকা

মেয়াদপূর্তি পর্যন্ত সন্তান বেঁচে থাকলে বোনাসসহ পলিসির বিমাকৃত অঙ্ক পরিশোধ করা হয়। তবে পলিসি গ্রাহক যদি সন্তানের বাবা হন এবং তিনি যদি মারা যান, তাহলে সব প্রিমিয়াম মওকুফ করা হবে এবং মেয়াদ পর্যন্ত পলিসিটিও চালু থাকবে। শুধু তা–ই নয়, পলিসির মেয়াদপূর্তি পর্যন্ত বিমাকৃত অঙ্কের ১ শতাংশ অর্থ শিক্ষার জন্য প্রতি মাসে সন্তানকে দেওয়া হবে। মেয়াদপূর্তির পর বিমাকৃত অঙ্ক বোনাসসহ সন্তানকে দেওয়া হবে। 

দুর্ঘটনায় মারা গেলে

সন্তানের বাবা যদি দুর্ঘটনার কারণে মারা যান, তাহলে সন্তানের মা তাঁর সংসার চালানো ও সন্তানের দেখভালের জন্য এককালীন টাকা তো পাবেনই, পলিসির মেয়াদ পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত সন্তানও মাসে মাসে টাকা টাকা পাবে। আবার ভবিষ্যতে কোনো প্রিমিয়ামও দিতে হবে না। 

যদি কোনো কারণে সন্তানও মারা যায়, তাহলে শিশু বিমা আইন অনুযায়ী সন্তানের জন্য করা পলিসি বাবদ পুরো টাকা এবং বোনাস পাবেন বাবা বা পলিসির আবেদনকারী। 

অঙ্গহানিতেও নিরাপত্তা

দুটি প্রধান অঙ্গহানি ঘটলে বিমাগ্রহীতা পলিসির পুরো টাকা পাবেন। উভয় চোখের দৃষ্টিশক্তি হারালে উভয় কানের শ্রবণশক্তি হারালে বা বাক্শক্তি হারালেও পাবেন পলিসির পুরো টাকা। তবে হাত, পা বা একটি প্রধান অঙ্গহানি ঘটলে গ্রাহক পাবেন পলিসির অর্ধেক টাকা। গ্রাহককে মেটলাইফ প্রতিবছর একটি কর সনদ দেবে, যা দিয়ে ১৫ শতাংশ কর মওকুফের সুবিধা ভোগ করতে পারেন গ্রাহক। 

পলিসি তামাদি হলে

অনেকেই অলসতা করে পলিসি নিয়মিত রাখেন না। এতে পলিসি তামাদি হয়ে যায়। পলিসি শুরুর দুই বছরের মধ্যে কেউ নিয়মিত বা পলিসি চালু রাখতে না চাইলে কোনো টাকা ফেরত পাওয়া যায় না। দুই বছর পর নির্ধারিত নিয়ম অনুযায়ী টাকা ফেরত পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। 

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0