তবে এবার আগের মতো ট্রাকে করে পণ্য বিক্রি করবে না টিসিবি। শুধু ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে ডিলারের দোকান বা নির্ধারিত স্থান থেকে টিসিবির এসব পণ্য কিনতে হবে। এই দফায় একজন ভোক্তা সর্বোচ্চ দুই লিটার সয়াবিন তেল, দুই কেজি মসুর ডাল ও এক কেজি চিনি কিনতে পারবেন। প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১১০ টাকা, আর প্রতি কেজি চিনি ৫৫ টাকা ও মসুর ডাল ৬৫ টাকা দরে বিক্রি হবে।

মঙ্গলবার টিসিবির এক সংবাদ বিজ্ঞাপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় এক কোটি নিম্ন আয়ের পরিবারকে ভর্তুকি মূল্যে টিসিবির পণ্য দেওয়া হবে।

এদিকে মাদারীপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জসহ কিছু জেলায় টিসিবির এই পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হবে ২৬ জুন। আর বন্যার কারণে সিলেট বিভাগের জেলাগুলোতে আপাতত স্থগিত থাকবে বিক্রি কার্যক্রম। পরিস্থিতি বিবেচনায় পরবর্তী সময়ে বিক্রির তারিখ জানাবে সংস্থাটি।

রোজার পর তেলসহ নিত্যপণ্যের দাম ঊর্ধ্বমুখী হয়ে ওঠার পরিস্থিতিতে গত মে মাসের মাঝামাঝি সময়ে ট্রাকে করে দেশজুড়ে টিসিবির পণ্য বিপণন শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে ওই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে সংস্থাটি। এখন থেকে সুলভ মূল্যে এসব পণ্য পাবে কেবল ফ্যামিলি কার্ডধারী এক কোটি পরিবার।

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন