বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

রাজধানীর শাহবাগে অবস্থিত সাকুরা রেস্তোরাঁ ও বারটি পর্যটন করপোরেশনের মালিকানাধীন। এটি ২০০২ সাল থেকে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হচ্ছে। পর্যটন করপোরেশন এটি লিজ দেয় আসিফ ট্রেডার্স নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে। ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠানটিকে আরও ১০ বছরের জন্য ৯০ লাখ টাকায় লিজ দেওয়া হয়। রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত রুচিতা রেস্তোরাঁ ও বার পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে মেসার্স নেস্ট নামের একটি প্রতিষ্ঠান। এটি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ছাড়া হয় ২০১৪ সালে।

বগুড়ার পর্যটন মোটেল–সংলগ্ন বগুড়া বার ২০১৬ সাল থেকে পরিচালনা করছে মেসার্স ট্র্যান্ড স্যাটারস নামের একটি প্রতিষ্ঠান। পাঁচ বছরের জন্য এই বারটি ৪৪ লাখ টাকায় লিজ দেওয়া হয়েছে। রাজশাহী মোটেল–সংলগ্ন রাজশাহী বার বছরে ২০ লাখ ৭০ হাজার টাকার লিজে পরিচালনা করছে মেসার্স সুবর্ণা নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

বাগেরহাটের মোংলা চত্বরে অবস্থিত বারটি পরিচালনা করছে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স হোসেন চৌধুরী। সেটি পাঁচ বছরের জন্য ১৮ লাখ ৩২ হাজার টাকায় লিজ দেওয়া হয়েছে।

সিলেট পর্যটন মোটেল চত্বরে নির্মিত বারটি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরিচালনার জন্য মেসার্স এস এ এস ট্রেডার্স নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে লিজ দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের মালিকানায় আরেকটি বার হলো মেরী এন্ডারসন ভাসমান রেস্তোরাঁ ও বার। এটি নারায়ণগঞ্জের পাগলায় অবস্থিত। পরিচালনা করছে মেসার্স সোনারগাঁও ট্যুরিজম লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে ২০১৭ সালে চুক্তি করে করপোরেশন।

চট্টগ্রামের ভাটিয়ারীতে গলফ ক্লাব বার পরিচালিত হচ্ছে ভাটিয়ারী গলফ ক্লাবের মাধ্যমে। চট্টগ্রামের মোটেল সৈকত চত্বরে নির্মিত রেস্তোরাঁ ও বার পরিচালনা করছে মেসার্স সুবর্ণা এন্টারপ্রাইজ। বার্ষিক ৪৬ লাখ ৬০ হাজার টাকায় প্রতিষ্ঠানটিকে পাঁচ বছরের জন্য ওই বার লিজ দেওয়া হয়েছে।

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন