করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে ব্যাংকারদের ব্যাংকিং ডিপ্লোমা পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। আগামী ৪ ও ১১ ডিসেম্বর এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল

এর আগে গতকাল ২৭ নভেম্বর এই দফায় প্রথম ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর আজ হঠাৎ করে পরীক্ষা স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয় দ্য ইনস্টিটিউট অব ব্যাংকার্স, বাংলাদেশ (আইবিবি)।

জানা গেছে, সারা দেশের ২৫টি কেন্দ্রে প্রায় ৪০ হাজার ব্যাংকার এই পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য নিবন্ধন করেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪টি কেন্দ্রে এবং বিভাগীয় ও জেলা পর্যায়ের ২১টি কেন্দ্রে গতকাল শুক্রবার এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। তবে গতকালের পরীক্ষায় অর্ধেক ব্যাংকার অংশ নেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ও করোনার প্রকোপ বাড়তে থাকায় পরের দুটি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে।

‘করোনার প্রকোপ বাড়ায় পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা নেওয়া হবে।’
নওশাদ আলী চৌধুরী, মহাসচিব, আইবিবি
বিজ্ঞাপন

আইবিবির মহাসচিব নওশাদ আলী চৌধুরী আজ প্রথম আলোকে বলেন, ‘করোনার প্রকোপ বাড়ায় পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

যেকোনো বিষয়ে পড়াশোনা করেই ব্যাংকে চাকরি পাওয়া যায়। তবে চাকরি স্থায়ী ও পদোন্নতিসহ বিভিন্ন কারণে ব্যাংকিং ডিপ্লোমা পাস করা যেকোনো ব্যাংকারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। একইভাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদেরও বাধ্যতামূলক ডিপ্লোমা পাস করতে হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণাধীন আইবিবি এ পরীক্ষার আয়োজন করে।
সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ব্যাংক নির্দেশনা দিয়েছে,পদোন্নতির ক্ষেত্রে ডিপ্লোমাকে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। এ জন্য বিশেষ নম্বরও বরাদ্দ দিতে বলা হয়।

মন্তব্য করুন