মন্দা উতরানোর পথ বাতলে দিলেন সাবেক বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট

বিজ্ঞাপন
default-image

বিশ্বব্যাংকের সাবেক প্রেসিডেন্ট বরার্ট জোয়েলিক সতর্ক করেছেন, বর্তমান সংকট মোকাবিলায় দেশগুলো একসঙ্গে কাজ না করলে ১৯০০ সালের মতো দেখতে হবে বিশ্ব। বিশ্ব ও অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে সম্পর্কের ফাটল গুরুতর হুমকিস্বরূপ বলে তিনি আভাস দেন।

বিবিসি অনলাইনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জোয়েলিক বলেন, মন্দা থেকে বৈশ্বিক অর্থনীতির বেরিয়ে আসার একমাত্র পথই হলো একসঙ্গে কাজ করা।

একসময় মার্কিন উপপররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা এ অভিজ্ঞ অর্থনীতিবিদ জানান, তাঁর সবচেয়ে বড় চিন্তা হচ্ছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধি। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, তাদের সম্পর্কের অধঃপতন চলছে এবং জানি না এর শেষ কোথায়। এটা খুবই বিপজ্জনক অবস্থা।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিশ্বব্যাংকের সাবেক প্রধান সতর্ক করেন, ‘দেশগুলো বিশ্বায়ন থেকে পেছনে ফিরে আসতে শুরু করলে এবং জাতীয়তাবাদী স্বার্থ নিয়েই মেতে থাকলে বিশ্বের চেহারা ১৯০০ সালের মতো হতে পারে। ওই সময় বড় ক্ষমতাধরেরা পরস্পর প্রতিযোগিতায় লিপ্ত ছিল।’

২০০৭ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন জোয়েলিক। ওই সময় বিশ্বজুড়েই ছিল চরম অর্থনৈতিক সংকট। সংগঠনের প্রধান হিসেবে তিনি আর্থিক মুদ্রা মোকাবিলায় আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল ও বিভিন্ন দেশের সরকারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সে সময়ের কথা তুলে ধরে জোয়েলিক বলেন, ‘২০০৮-০৯ আর্থিক সংকট একটি মারাত্মক ঘটনা ছিল। তবে সে সময় জি-২০ ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলোর মধ্যে সহযোগিতার সম্পর্ক ছিল। সংকট মোকাবিলায় তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী গর্ডন ব্রাউনের সঙ্গে আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার অংশ হয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট বুশ ও প্রেসিডেন্ট ওবামা। সত্যিই, এমনকি চীনেরও খুব শক্তিশালী প্রণোদনা কর্মসূচি ছিল এবং বিভিন্ন উপায়ে সহযোগিতা করেছে। আমাদের আজকে সেই সহযোগিতার বোধ নেই।’

জোয়েলিক মহামারির সমাধানে যুক্তরাষ্ট্রকে চীনের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন