default-image

মূল্যস্ফীতিকে বলা হয় অর্থনীতির নীরব ঘাতক। রাজনৈতিকভাবেও সবচেয়ে স্পর্শকাতর অর্থনৈতিক সূচক হচ্ছে এই মূল্যস্ফীতি। কেননা, মূল্যস্তর বেড়ে গেলে মানুষের জীবনযাত্রার মান খারাপ হয়। মানুষের মধ্যে অসন্তোষ বাড়ে। তাই সব সরকারেরই অর্থনৈতিক লক্ষ্য হচ্ছে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব সরকার সফল হয় না। অর্থনৈতিক পরিস্থিতিকে সামাল দিতে পারে না। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পরে অতি মূল্যস্ফীতি জার্মানির অর্থনীতিকে দুর্বল করে দিয়েছিল। আর এই সময়ে দীর্ঘ বছর ধরে অতি মূল্যস্ফীতির টানা উদাহরণ হচ্ছে জিম্বাবুয়ে। আক্ষরিক অর্থেই দেশটির নাগরিকদের বস্তা ভরে টাকা নিয়ে বাজারে গিয়ে ব্যাগভর্তি বাজার নিয়ে আসতে হয়েছে। তবে এখন লাগামছাড়া মূল্যস্ফীতির দেশ হচ্ছে ভেনেজুয়েলা। তেলসমৃদ্ধ একটি দেশ কেবল ভুল নীতি ও অব্যবস্থাপনা কোথায় যেতে পারে, তার বড় উদাহরণ দেশটি। 

দেখা যাক কোন দশটি দেশ মূল্যস্ফীতিতে সবার ওপরে আছে। বলে রাখা ভালো বাংলাদেশের মূল্যস্ফীতির হার এখন ৬.০৫ শতাংশ।

১. ভেনেজুয়েলা ৩৯১১৩.৮০%

২. জিম্বাবুয়ে ৪৮০.৭০%

৩. দক্ষিণ সুদান ১৭০.৫০%

৪. সুদান ৫৭.৭০%

৫. আর্জেন্টিনা ৫১.৪০%

৬. লাইবেরিয়া ৩০.৯০%

৭. ইরান ২৭.০০%

৮. ইথিওপিয়া ২০.৮০%

৯. হাইতি ১৯.৫০%

১০. অ্যাঙ্গোলা ১৬.৩২% 

বিজ্ঞাপন
বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন