default-image

পোশাকশ্রমিকদের মার্চ মাসের মজুরি সময়মতো পরিশোধ করতে সদস্য পোশাক কারখানার মালিকদের নির্দেশ দিয়েছে নিট পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএ। সংগঠনটি মালিকদের উদ্দেশে বলেছে, সব শ্রমিকের মার্চ মাসের মজুরি অবশ্যই সময়মতো দিতে হবে। প্রয়োজনে ব্যাংকের সঙ্গে আগেই যোগাযোগ করে সহায়তা নিন। কোনো অবস্থাতেই শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টি হতে দেওয়া যাবে না।

বিকেএমইএর সভাপতি এ কে এম সেলিম ওসমান বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সদস্য পোশাক কারখানা প্রতিষ্ঠানকে এই নির্দেশনা দিয়েছেন। এতে কারখানা খোলা রাখার বিষয়ে তিনি বলেছেন, ক্রয়াদেশ থাকলে কারখানা পরিচালনা করতে সমস্যা নেই। ৪ এপ্রিল পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখতে বিকেএমইএর বিধিনিষেধ ছিল। তারপর সে ধরনের কোনো বিধিনিষেধ থাকছে না।

অবশ্য বিকেএমইএ আরও বলেছে, করোনা প্রতিরোধে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এই অবস্থায় ৪ এপ্রিলের পর কারখানা খোলা রাখার বিষয়টি মালিকদের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে। কারখানা খোলা রাখলে শ্রমিক ও কর্মচারীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে তা পরিচালনা করতে হবে।

কোনো সদস্য তার কারখানা বন্ধ করতে চাইলে সর্বপ্রথম বিকেএমইএকে লিখিতভাবে জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন সভাপতি সেলিম ওসমান। সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, শ্রম আইনের কোন ধারা অনুযায়ী কারখানা বন্ধ করতে হবে অথবা কোন ধারা প্রযোজ্য হবে, তা বিকেএমইএর কাছ থেকে জেনে ব্যবস্থা নিতে হবে। কোনো অবস্থাতেই বিকেএমইএর সিদ্ধান্ত না নিয়ে কারখানা বন্ধ করা যাবে না।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0