default-image

জাতীয় পর্যায়ের পর এবার সিটি করপোরেশন ও জেলাগুলোর সেরা করদাতাদের তালিকা প্রকাশ করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এ তালিকায় দেশের বড় ব্যবসায়ীরাও আছেন। স্কয়ার গ্রুপের তপন চৌধুরী, অঞ্জন চৌধুরী, এ কে খান গ্রুপের পরিচালক ও ঢাকা চেম্বারের সাবেক সভাপতি সালাউদ্দিন কাশেম খান, সিটি গ্রুপের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমানেরা এ তালিকায় রয়েছেন।

প্রতিটি সিটি করপোরেশন ও জেলা থেকে তিনজন সর্বোচ্চ করদাতা, দুজন দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী এবং একজন করে নারী ও তরুণ করদাতাকে মনোনীত করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ৫২১ জন করদাতাকে এবার সম্মাননা দেবে এনবিআর। গতকাল বৃহস্পতিবার এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের আয়কর বিবরণীর ভিত্তিতে তালিকাটি করা হয়েছে।

অবশ্য কয়েক বছর ধরেই এ ধরনের সম্মাননা দিয়ে আসছে এনবিআর। ১৪ নভেম্বর রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঢাকা বিভাগের সেরা করদাতাদের সম্মাননা দেওয়া হবে। বাকিদের বিভাগীয় পর্যায়ের অনুষ্ঠানে সম্মাননা দেবে সংশ্লিষ্ট কর অঞ্চলগুলো।

সিটি করপোরেশন পর্যায়ে যাঁরা এবার সেরা করদাতা হয়েছেন, তাঁরা হলেন—

ঢাকা সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা হিসেবে সম্মাননা পাবেন এ কে এম তুহিন উর রহমান, সিটি গ্রুপের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান এবং এ সাহাবুদ্দিন আহমেদ। দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী হিসেবে এস এম ফয়সাল ও সঞ্জয় বণিক; সর্বোচ্চ নারী করদাতা হিসেবে ট্রান্সকম গ্রুপের পরিচালক শাহনাজ রহমান এবং তরুণ করদাতা হিসেবে আহমেদ ইমতিয়াজ হাসান সম্মাননা পাবেন।

>

কর সম্মাননা
এবার জেলা ও সিটি করপোরেশন পর্যায়ে সব মিলিয়ে ৫২১ জন করদাতাকে সম্মাননা দেবে এনবিআর

চট্টগ্রাম সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা শ্রেণিতে এ কে খান গ্রুপের পরিচালক সদরউদ্দিন খান, আবু মোহাম্মদ জিয়া উদ্দিন খান ও সালাউদ্দিন কাশেম খান। তাঁরা সবাই এক পরিবারের সদস্য। চট্টগ্রাম সিটিতে দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারীর তালিকায় আছেন এ বি এম এ বাসেত ও আমজাদুল ফেরদৌস চৌধুরী। এ ছাড়া শামিম হাসান সর্বোচ্চ নারী করদাতা ও শাহাদাত হোসাইন তরুণ করদাতা হয়েছেন।

রাজশাহী সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা সৈয়দ জাকির হোসেন, তৌরিদ আল মাসুদ ও মাহফুজুর রহমান; দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী হাবিবুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম; নারী করদাতা নূর জাহান বেগম; তরুণ করদাতা আনোয়ার হোসেন।

খুলনা সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা খান সাইফুল ইসলাম, আবদুল হামিদ সরদা, এস এম মনিরুজ্জামান শাহীন; দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী আবু বকর শেখ ও সৈয়দ আবু নাসের; নারী করদাতা সাবিত্রী আগরওয়ালা ও তরুণ করদাতা কাজী সানোয়ার হোসেন।

বরিশাল সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা জসিম উদ্দিন সিকদার, সত্য কৃষ্ণ পিপলাই ও মেহেদী হাসান চৌধুরী; দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী মোখলেছুর রহমান ও শামসুল আরেফিন; নারী করদাতা আনিকা রহমান ও তরুণ করদাতা আমিনুল হক।

সিলেট সিটি

এ কে এম আতাউল করিম, নাসিম হোসেন ও ফরিদ বক্স সর্বোচ্চ করদাতা; আফতাব চৌধুরী ও মঈনুল হক চৌধুরী দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী এবং শামসুন নাহার বেগম নারী করদাতা ও দেবাংশু দাস তরুণ করদাতা হয়েছেন।

কুমিল্লা সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা সাংসদ আ ক ম বাহাউদ্দিন, শরফরাজ হাসান ও মাহতাব উদ্দিন ভূঁইয়া; দীর্ঘ সময় কর প্রদানকারী মাহবুবুল আলম ও সুবীর সাহা; নারী করদাতা ফারহানা বেগম ও তরুণ করদাতা উজ্জ্বল কুমার দে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি

হাসান আহমেদ, আরিফ আহমেদ ও মুসা আহমেদ সর্বোচ্চ করদাতা এবং নূরজাহান আহমেদ নারী করদাতা হয়েছেন। তাঁরা সবাই এক পরিবারের সদস্য। এ ছাড়া দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী হিসেবে আছেন রুহুল আমিন ও মাহফুজ হোসেন এবং তরুণ করদাতা হয়েছেন ইমতিনান ওসমান।

রংপুর সিটি

ইয়ামিন রসূল চৌধুরী, মোকছেদুল ইসলাম ও আলমগীর হোসেন সর্বোচ্চ করদাতা; এ এইচ এম হায়দার আলী ও রফিকুল ইসলাম দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী; সামসি আরা নারী করদাতা এবং তৌহিদ হোসেন তরুণ করদাতার সম্মাননা পাবেন।

গাজীপুর সিটি

সর্বোচ্চ করদাতা মোবারক হোসেন, মহিউদ্দিন জোমাদ্দার ও আমির হোসেন নূরানী; দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী ইকরামুজ্জামান চৌধুরী ও এস এ এম ইউসুফ; নারী করদাতা মাসুদা পারভীন ও তরুণ করদাতা মাহতাব উদ্দিন সরকার।

ময়মনসিংহ সিটি

মাহবুবুল আলম, ফজলুল হক হজন ও খন্দকার মাহবুব আলম সর্বোচ্চ করদাতা; নরেন্দ্র মোহন সাহা ও মুহম্মদ সালেহুজ্জামান খান দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী; জিন্নাতুন নূর নারী করদাতা এবং লিটন মিয়া তরুণ করদাতা হয়েছেন।

জেলা পর্যায়

পাবনা জেলায় সাতজন সেরা করদাতার মধ্যে ছয়জনই একই পরিবারের। এর মধ্যে সর্বোচ্চ করদাতা হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন স্কয়ার গ্রুপের তিন ভাই তপন চৌধুরী, অঞ্জন চৌধুরী ও স্যামুয়েল এস চৌধুরী। স্যামুয়েল এস চৌধুরীর স্ত্রী কবিতা চৌধুরী দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী হয়েছেন। তাঁদের ছেলে এরিক এস চৌধুরী তরুণ করদাতা হিসেবে সর্বোচ্চ কর দিয়েছেন। আর তপন চৌধুরীর স্ত্রী বুলা চৌধুরী সর্বোচ্চ নারী করদাতা হয়েছেন। এ ছাড়া পাবনা থেকে দীর্ঘ সময়ের করদাতা হিসেবে সম্মাননা পাচ্ছেন শেখ মোহাম্মদ আফতাব উদ্দিন।

নেত্রকোনা জেলা থেকে দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানের জন্য এবার সম্মাননা পাচ্ছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান। ওই জেলার সৈয়দ জাহেদুল ইসলাম আলমও একই শ্রেণিতে সম্মাননা পাচ্ছেন। ওই জেলার সর্বোচ্চ করদাতা হলেন মৃত্যুঞ্জয় রায়, অসীম কুমার সিংহ ও কামরুল ইসলাম। এ ছাড়া সুশ্রী রানী সাহা নারী করদাতা ও সেলিম তালুকদার তরুণ করদাতা নির্বাচিত হয়েছেন।

নরসিংদী জেলায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করদাতা হয়েছেন নরসিংদী পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ কামরুজ্জামান। ওই জেলায় সর্বোচ্চ করদাতা হন মাধবদীর ব্যবসায়ী সুবোধ রঞ্জন দাস ও তৃতীয় সর্বোচ্চ করদাতা হন সঞ্জয় কুমার সাহা। দীর্ঘ সময় ধরে কর প্রদানকারী হিসেবে আছেন আবদুস ছালাম ও বিষ্ণু সাহা। হেলেনা হালিম নারী করদাতা ও রাশেদুল হাসান তরুণ করদাতার সম্মাননা পাবেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0