বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে আকিজ টেবিল ওয়্যারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সেখ বশির উদ্দিন বলেন, ‘আকিজ গ্রুপ যে ব্যবসায় হাত দেয়, সেখানেই সবচেয়ে ভালোটা করতে ও সেরা হতে চায়। যেখানে সেরা বা ভালো কিছু করা যাবে না, সে ব্যবসায় আমরা যেতে চাই না। আমরা স্বল্প সময়ের জন্য চটকদার কাজে বিশ্বাস করি না। আমাদের বিশ্বাস, তৈজস কারখানায়ও সেরা মেধা ও প্রযুক্তির সমন্বয়ে মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদিত হবে। দেশের ক্রমবর্ধমান মধ্যবিত্ত শ্রেণির পছন্দ ও সামর্থ্য বিবেচনায় রেখে তাদের উপযোগী করে বিভিন্ন ধরনের তৈজস তৈরি করা হবে।’

আকিজ গ্রুপের সঙ্গে নিজের স্মৃতিচারণা করে সেখ বশির উদ্দিন বলেন, ‘আমার বয়স এখন ৫০। আমি ছোট থেকে আকিজ গ্রুপের সদস্য। গ্রুপে এমন কর্মী রয়েছেন, যাঁদের থেকে আমি চকলেট নিয়ে খেয়েছি। তাঁদের আমি ছোট থেকে কাকা বলে ডাকি। তাঁরা আমাকে এখন সবার সামনে স্যার বলে ডাকেন। আমি তাঁদের বারবার বলি, আমাকে স্যার না বলার জন্য। এরপর তাঁরা বলেন, অফিসের পরিবেশ ঠিক রাখতে এটা বলতে হবে। এটাই হলো আকিজ পরিবার।’

অনুষ্ঠানে আকিজ টেবিল ওয়্যারের পরিচালক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম বলেন, ‘রপ্তানির পাশাপাশি দেশের বাজারকে আমরা বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি নতুন এ ব্যবসায়।’ এ সময় তিনি আকিজ গ্রুপের প্রতিষ্ঠা ও গত ৮০ বছরের পথচলার পরিক্রমা তুলে ধরেন।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সিরামিক ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিএমইএ) সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মোল্লা, মুন্নু সিরামিকের ভাইস চেয়ারম্যান মইনুল ইসলামসহ সিরামিক খাতের উদ্যোক্তা ও পরিবেশকেরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় উপস্থিত ব্যবসায়ী ও পরিবেশকেরা আকিজ টেবিল ওয়্যারের সাফল্য কামনা করেন। আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পর প্রতিষ্ঠানটির পণ্য প্রদর্শন করা হয়।

বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন