আগের অবস্থানে ফিরছে শেয়ারবাজারের ১২ কোম্পানি

  • শেয়ারবাজারের ‘জেড’ শ্রেণি থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে ১২ কোম্পানি। আজ বুধবার থেকে এসব কোম্পানি তাদের আগের শ্রেণিতে ফিরে যাবে।

  • শেয়ারধারীদের নিয়মিত লভ্যাংশ না দেওয়া, নিয়মিত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম না করাসহ বিভিন্ন শর্ত পালনে ব্যর্থতার জন্য তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে ‘জেড’ শ্রেণিভুক্ত করা হয়।

  • জেড শ্রেণির কোম্পানির শেয়ার লেনদেনের নিষ্পত্তির সময় আজ থেকে কমে চার দিনে নেমে এসেছে।

বিজ্ঞাপন
default-image

শেয়ারবাজারের ‘জেড’ শ্রেণি থেকে বেরিয়ে যাচ্ছে ১২ কোম্পানি। আজ বুধবার থেকে এসব কোম্পানি তাদের আগের শ্রেণিতে ফিরে যাবে। অর্থাৎ যে কোম্পানি ‘এ’ থেকে ‘জেডে’ এসেছিল সেই কোম্পানি ‘এ’-তে এবং যে কোম্পানি ‘বি’ থেকে এসেছিল সেই কোম্পানি ‘বি’ শ্রেণিতে ফিরে যাবে।

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) গতকাল মঙ্গলবার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজ বুধবার থেকে নতুন এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শেয়ারবাজারে ‘জেড’ শ্রেণির শেয়ার মন্দ বা বাজে কোম্পানি হিসেবে পরিচিত। শেয়ারধারীদের নিয়মিত লভ্যাংশ না দেওয়া, নিয়মিত বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম না করাসহ বিভিন্ন শর্ত পালনে ব্যর্থতার জন্য তালিকাভুক্ত কোম্পানিকে ‘জেড’ শ্রেণিভুক্ত করা হয়। এসব শেয়ার জাঙ্ক শেয়ার হিসেবেও পরিচিত। সম্প্রতি এসব কোম্পানির বিষয়ে বিএসইসি একগুচ্ছ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারই অংশ হিসেবে ১২ কোম্পানিকে ‘জেড’ থেকে ফিরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। তবে বিএসইসির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব কোম্পানির নাম প্রকাশ করা হয়নি। বিষয়টি মূল্য সংবেদনশীল হওয়ায় এ বিষয়ে কেউ কথা বলতে রাজি হননি।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
ওই ১২ কোম্পানি হলো—অ্যাপোলো ইস্পাত, বিডি থাই, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট, লিবরা ইনফিউশনস,খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ ইন্ডাস্ট্রিজ, রেনউইক যোগেশ্বর, সাফকো স্পিনিং, সালভো কেমিক্যাল, এবি ব্যাংক, ফুয়াং সিরামিকস, জাহিন টেক্সটাইল ও প্রাইম ইনস্যুরেন্স।

বিএসইসির একাধিক সূত্রে ১২ কোম্পানির নাম পাওয়া গেছে। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এ কোম্পানিগুলো হলো—অ্যাপোলো ইস্পাত, বিডি থাই, হাইডেলবার্গ সিমেন্ট, লিবরা ইনফিউশনস,খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ ইন্ডাস্ট্রিজ, রেনউইক যোজ্ঞেশ্বর, সাফকো স্পিনিং, সালভো কেমিক্যাল, এবি ব্যাংক, ফুয়াং সিরামিকস, জাহিন টেক্সটাইল ও প্রাইম ইনস্যুরেন্স। বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, নতুন বিধান অনুযায়ী, ‘জেড’ শ্রেণির মধ্যে যেসব কোম্পানি অপেক্ষাকৃত ভালো তাদেরই শ্রেণিমান উন্নত করা হচ্ছে। নতুন বিধানে বলা হয়েছে, যেসব কোম্পানি পরপর দুই বছর শেয়ারধারীদের নগদ লভ্যাংশ প্রদান ও বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএম করতে ব্যর্থ হবে সেসব কোম্পানিকে জেড শ্রেণিতে স্থানান্তরিত হবে।

এদিকে, জেড শ্রেণির কোম্পানির শেয়ার লেনদেনের নিষ্পত্তির সময় আজ থেকে কমে চার দিনে নেমে এসেছে। আগে যেখানে এ ধরনের শেয়ার লেনদেনে সময় লাগত ১০ দিন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন