default-image

আগামী এক থেকে দেড় দশকে চীন বাংলাদেশের জ্বালানি, বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ খাতে ৫ হাজার কোটি ডলারের বিনিয়োগ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যে প্রগতি ও উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছি, তাতে চীন গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার। আগামী ১০-১৫ বছরে চীন বাংলাদেশের জ্বালানি, বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ খাতের উন্নয়নে ৫ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে বলে আশা করা যায়।’

রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে গত সোমবার হংকং অ্যান্ড সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশনের (এইচএসবিসি) ‘বাংলাদেশ-চীন বাণিজ্য সম্ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। এতে বাংলাদেশে চীনা ব্যবসায়ী গোষ্ঠী, ব্যাংকের গ্রাহক ও এইচএসবিসির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। ব্যাংকটির পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সভায় বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব আহমদ কায়কাউস বলেন, ‘২০৪১ সাল নাগাদ ৮২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে সরকার। সে জন্য প্রয়োজন হবে ১৮ হাজার কোটি ডলারের বিনিয়োগ।’

আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনা ইকোনমিক কাউন্সিলর লি গুয়াংজুন,এইচএসবিসি এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের কমার্শিয়াল ব্যাংকিং বিভাগের ইন্টারন্যাশনাল কান্ট্রিজ আঞ্চলিক প্রধান টিম ইভান্স, এইচএসবিসি বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী ফ্রাঁসোয়া দ্য ম্যারিকো, উপপ্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (ডেপুটি সিইও) মো. মাহবুবউর রহমান প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন