টানা অবরোধ ও হরতালে রাজস্ব আদায়ে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। ঘাটতি ক্রমশ বেড়ে চলেছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) রাজস্ব আদায়ে ঘাটতি দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৩৫৯ কোটি টাকা। প্রথম ছয় মাসে ২ হাজার ৪ কোটি টাকার ঘাটতি ছিল।
আলোচ্য সময়ে শুল্ক, মূল্য সংযোজন কর (মূসক) ও আয়কর খাতে ৬৯ হাজার ৪৬৬ কোটি টাকা রাজস্ব আদায় করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এ সময় আদায়ের লক্ষ্য ছিল ৭১ হাজার ৮২৫ কোটি টাকা।
এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান গতকাল মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য দেন। এনবিআর সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী, জানুয়ারি মাসে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য ছিল ১০ হাজার ৭১৪ কোটি টাকা। এর বিপরীতে আদায় হয়েছে ১০ হাজার ৩৫১ কোটি টাকা; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৩৬৩ কোটি টাকা কম।
শীর্ষ করদাতারা সম্মাননা পাবে: সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, শিগগিরই বৃহৎ করদাতা ইউনিট (এলটিইউ) এবং ঢাকা বিভাগের দুটি কর অঞ্চলের ৩০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে শীর্ষ করদাতা হিসেবে সম্মাননা দেবে এনবিআর। এ লক্ষ্যে প্রতিটি কর অঞ্চল থেকে ১০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান বাছাই করা হয়েছে।
এলটিইউ থেকে নির্বাচিত হওয়া শীর্ষ ১০ করদাতা হলো: গ্রামীণফোন, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, এইচএসবিসি, ব্রিটিশ-আমেরিকান টোব্যাকো, পূবালী ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ইউসিবিএল ও ডাচ্-বাংলা ব্যাংক।
কর অঞ্চল-১-এর নির্বাচিত করদাতারা হলো: আকিজ ফুড, এসিআই ফরমুলেশনস, এসিআই মোটরস, আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজেস, আকিজ টেক্সটাইল মিলস, আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন, আকিজ বিড়ি, আজমত রহমান, মশিউর রহমান হুমায়ুন ও নুরুল হুদা। কর অঞ্চল-২-এর শীর্ষ ১০ হলো: কাউছ মিয়া, এসজিএস বাংলাদেশ, স্কয়ার সেফালসপরিনস, সিঙ্গার, কুহনে+নাগাল, সাকো ইন্টারন্যাশনাল, ইয়াং ওয়ান হাইটেক স্পোর্টস ওয়্যার, সায়হাম কটন, স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজ ও স্কয়ার ইয়ার্ন।
দাতব্য ব্যয়ে কর অব্যাহতি: দাতব্য খাতে ব্যয় করলে কর রেয়াত সুবিধা দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ জন্য সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে নিয়ে একটি নির্দেশিকা তৈরি করবে এনবিআর। সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান এনবিআর চেয়ারম্যান।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বেশ কিছু খাতকে কর রেয়াত সুবিধা দেওয়া হবে। বেগম রোকেয়া নারী ও শিশু-স্বাস্থ্য উন্নয়ন সংস্থার তহবিলে দান করলে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর রেয়াত সুবিধা পাবে। একইভাবে হোপ ওয়ার্ল্ডওয়াইড বাংলাদেশকে দেওয়া দানেও কর রেয়াত পাওয়া যাবে। এ ছাড়া যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের গাড়ির নিবন্ধন ও ফিটনেস নবায়নকালে উৎসে কর কাটা হবে না।

বিজ্ঞাপন
বিশ্লেষণ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন