বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সাধারণ মানুষের সঞ্চয়ের জন্য এখনো নিরাপদ ব্যাংক খাত। তবে গত কয়েক বছরে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যাংকে টাকা জমা রেখে সময়মতো তা ফেরত না পাওয়ার অভিজ্ঞতা হয়েছে বহু গ্রাহকের। এ কারণে ব্যাংকে টাকা রাখার ক্ষেত্রেও অনেকের মধ্যে ভয় কাজ করে। বর্তমান বাস্তবতায় কোনো ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানে টাকা রাখার আগে ওই প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নিতে হবে। এ জন্য সাধারণ মানুষ যেই ব্যাংক বা প্রতিষ্ঠানে টাকা জমা রাখতে চায়, সেই প্রতিষ্ঠানের আর্থিক প্রতিবেদন পড়ে দেখতে পারেন। সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠানের সম্পদের অবস্থা কী, আয় কেমন, মূলধন কেমন—এসব বিবেচনা করা যেতে পারে। আবার ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদে কারা আছেন, তা–ও বিবেচনা করতে পারেন গ্রাহকেরা। কারণ, একটি ব্যাংকের পরিচালকদের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করে। আবার অনেক সময় দুর্বল ভিত্তির ব্যাংক বেশি সুদ দিয়ে টাকা নেয়, এটিও খেয়াল রাখার বিষয়।

ব্যাংক সম্পর্কে এখন অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়, সেগুলোও আমলে নেওয়া যেতে পারে। কারণ, সাধারণ মানুষের জন্য ভালো সুদের পাশাপাশি আসল টাকা ফেরত পাওয়ার নিশ্চয়তাটা খুব জরুরি। গ্রাহকের আমানত যাতে সুরক্ষিত থাকে, এই বিষয়ে সব ব্যাংকের সক্রিয় থাকা প্রয়োজন। কারণ, মানুষ কষ্টের টাকা ব্যাংকে জমা রাখে। টাকা জমার রাখার ক্ষেত্রে পারিপার্শ্বিক জ্ঞান কাজে লাগানো যেতে পারে। এটা খুব জরুরি। যদিও বাংলাদেশের মানুষের আর্থিক জ্ঞান অনেক কম।

ব্যাংক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন