বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, রপ্তানি আয় চার মাসের মধ্যে দেশে প্রত্যাবাসনের বাধ্যবাধকতা সেবা রপ্তানির ক্ষেত্রেও সমভাবে প্রযোজ্য হবে। সেবা রপ্তানি আয় দেশে নিয়ে আসার সুবিধার্থে রপ্তানিকারক বিদেশে শুধু ন্যাশনাল হিসাব (অন্য দেশের লাইসেন্সপ্রাপ্ত পেমেন্ট গেটওয়েতে অনানুষ্ঠানিক হিসাব) কিংবা মার্চেন্ট হিসাব পরিচালনা করতে পারবে। এসব হিসাব ছাড়া ক্রিপটোকারেন্সিসহ অন্য কোনো মুদ্রায় ভিন্ন হিসাব বিদেশে খুলতে পারবে না বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে সুস্পষ্ট করা হয়েছে, রপ্তানি আয় দিয়ে বিদেশে মূলধনীয় বিনিয়োগ কিংবা পোর্টফোলিও বিনিয়োগ, স্থায়ী সম্পদ বা ভার্চ্যুয়াল সম্পদ ক্রয় করা যাবে না। এ জাতীয় কার্যক্রম বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইনের লঙ্ঘন হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, সেবা খাতে এখন ভালো আয় হচ্ছে। তবে অনেকেই তা সময়মতো ও পুরোপুরি দেশে আনছেন না। এই কারণে নতুন করে এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

ব্যাংক থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন