default-image

পর্যটন-বাণিজ্য বাংলাদেশের অর্থনৈতিক খাতের একটি অন্যতম প্রধান সম্ভাবনার উৎস। দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে পালন করছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি প্রায় ৪ দশমিক ৪ শতাংশ উঠে আসে দেশের পর্যটন-বাণিজ্য থেকে।

বাংলাদেশের পর্যটন খাতের উন্নতির পেছনে অন্যতম ভূমিকা পালন করে আসছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ সমুদ্রসৈকত কক্সবাজার। কক্সবাজার পর্যটন কেন্দ্র এবং তার চারপাশ ঘিরে গড়ে ওঠা বাণিজ্য বাংলাদেশের বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের জন্য তৈরি করে দিয়েছে লাভজনক বিনিয়োগের সুযোগ। এমনই একটি বিনিয়োগের সুযোগ আপনার জন্য নিয়ে এসেছে ‘কোরাল রিফ প্রোপার্টিজ’। তিনটি ভিন্ন ধরনের প্যাকেজে এককালীন ইনভেস্টমেন্ট করে আপনি হতে পারেন ‘হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজার’-এর মালিক, আজীবনের জন্য!

কোরাল রিফ প্রোপার্টিজ লিমিটেড বাংলাদেশের একটি অন্যতম বৃহৎ আবাসন প্রতিষ্ঠান। ইতিমধ্যেই বাংলাদেশে আরও বেশ বড় কয়েকটি প্রোজেক্ট সম্পন্ন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সেই কোরাল রিফের উদ্যোগে কক্সবাজারের প্রাণকেন্দ্র কলাতলীতে স্থাপিত হয়েছে লাক্সারি হোটেল হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজার, যা বেস্ট ওয়েস্টার্ন হেরিটেজ নামেও সুপরিচিত।

বিজ্ঞাপন

কোরাল রিফের সৌজন্যে এখন আপনিও হতে পারেন কক্সবাজারের এই লাক্সারি হোটেলের একজন মালিক। প্রিমিয়াম, ডিলাক্স ও করপোরেট—এই তিন মালিকানা প্যাকেজের মধ্য থেকে প্রয়োজন অনুযায়ী বেছে নিন পছন্দের প্যাকেজ। প্রতিটি প্যাকেজেই এককালীন বিনিয়োগের মাধ্যমে মালিকানার পাশাপাশি আপনি পাচ্ছেন হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারের বিভিন্ন ধরনের সুবিধা। প্রিমিয়াম ও ডিলাক্স প্যাকেজে যথাক্রমে প্রতিবছরের নয় দিন এবং সাত দিনের জন্য একজন মালিক হিসেবে আপনি থাকতে পারেন হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারে, কোনো ধরনের রুমচার্জ ছাড়াই। করপোরেট প্যাকেজের মাধ্যমে আপনার অফিস অথবা ব্যবসাসংক্রান্ত যেকোনো সেমিনার, ওয়ার্কশপ বা রিট্রিটের জন্য পাবেন বছরের ১৪ দিন হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারের বিভিন্ন ধরনের সার্ভিস। এ ছাড়া প্রতিটি প্যাকেজের সঙ্গেই রয়েছে বাই ব্যাক ফ্যাসিলিটি, অর্থাৎ ইনভেস্টমেন্টের ১০ বছর পর আপনি চাইলেই আপনার প্যাকেজটি বিক্রি করতে পারবেন।

প্যাকেজ বিস্তারিত: প্রিমিয়াম প্যাকেজ

একজন মালিক হিসেবে উপভোগ করতে চাইছেন হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারের আকর্ষণীয় সব সার্ভিস? কোরাল রিফের প্রিমিয়াম ওনারশিপ প্যাকেজটিতে বছরের যেকোনো নয় দিন আপনি থাকতে পারবেন হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারে, থাকছে না কোনো ধরনের রুমচার্জ। আপনাকে যেকোনো সার্ভিস প্রদানের জন্য ২৪ ঘণ্টা প্রস্তুত থাকবেন একজন বাটলার। হোটেলের একজন মালিক হিসেবে আপনি পাচ্ছেন মেম্বার’স লাউঞ্জ এবং এক্সিকিউটিভ লাউঞ্জ এক্সেস। দুজনের জন্য বুফেতে থাকছে বাই ওয়ান গেট ওয়ান অফার। কক্সবাজার ঘুরতে এসে হোটেলের চেকইন এবং চেকআউট টাইম নিয়ে ঝামেলায় পড়েন অনেকেই। একজন ওনার হিসেবে হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারে আপনি চেকইন ও চেকআউট করতে পারবেন আপনার সুবিধামতো। এ ছাড়া দুজনের জন্য থাকছে স্পাতে ৩০ শতাংশ ডিসকাউন্ট।

কক্সবাজারের সবচেয়ে সেরা এক্সপেরিয়েন্স যেন আপনি উপভোগ করতে পারেন, সেটি নিশ্চিত করার জন্য থাকছে ‘বিচ বাগি রাইড’, ‘বিচ বেঞ্চ ফ্যাসিলিটি’, ‘বিচসাইড বারবিকিউ, ‘জেট স্কি’ ও ‘প্যারাগ্লিডিং’–এর মতো এক্সক্লুসিভ সার্ভিস। এককালীন ৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা ইনভেস্টমেন্টের মাধ্যমে মালিকানা অর্জনের পাশাপাশি এসব বেনিফিট আপনি উপভোগ করতে পারবেন আজীবনের জন্য।

করপোরেট প্যাকেজ

অফিস অথবা ব্যবসার জন্য প্রতিবছরই হয়তো প্রয়োজন হয় বিভিন্ন ধরনের সেমিনার, ওয়ার্কশপ অথবা করপোরেট ট্যুরের। কোরাল রিফের করপোরেট প্যাকেজে মাত্র ৯ লাখ ৯০ হাজার টাকা খরচে ১০ বছরে সেভ করুন ১১ লাখ টাকা পর্যন্ত! যেমন আপনি ২০ জন এমপ্লয়ি নিয়ে একটি করপোরেট রিট্রিটে এসেছেন। দুটি রুম আপনি পাচ্ছেন সম্পূর্ণ ফ্রিতে। বাকি আটটি রুমে আপনার জন্য থাকছে ২০ শতাংশ ডিসকাউন্ট। এ ছাড়া ফুডে পাচ্ছেন ২৫ শতাংশ ডিসকাউন্ট। কনফারেন্স রুম এবং ব্যানকোয়েট হলে আপনার জন্য থাকছে স্পেশাল ৫০ শতাংশ ডিসকাউন্ট! তাই যেকোনো অফিস বা ব্যবসার করপোরেট ট্যুরের জন্য কোরাল রিফের এই প্যাকেজটাই উপযোগী।

ডিলাক্স প্যাকেজ

স্বল্প বিনিয়োগে কক্সবাজারের অন্যতম সেরা একটি হোটেলের মালিক হতে পারছেন কোরাল রিফের ডিলাক্স প্যাকেজে। মাত্র ৪ লাখ ৯০ হাজার টাকায় বছরের সাত দিনের জন্য আপনি পাচ্ছেন হেরিটেজ হোটেল কক্সবাজারের এক্সক্লুসিভ সব সুবিধা। চেকইন এবং চেকআউট করুন আপনার সুবিধামতো সময়ে। থাকছে এক্সক্লুসিভ মেম্বার’স লাউঞ্জ অ্যাকসেস এবং ফ্রি কারপার্কিং সুবিধা। এ ছাড়া কক্সবাজারের সমুদ্রসৈকতের আনন্দ উপভোগ করার জন্য থাকছে ‘বিচ বেঞ্চ ফ্যাসিলিটি’ ও বিচ বাগি রাইড’। স্বল্প বিনিয়োগের মাধ্যমে এই এক্সক্লুসিভ সুবিধা উপভোগ করার পাশাপাশি একটি হোটেলের মালিকানা আপনি পাচ্ছেন কোরাল রিফের এই প্যাকেজে।

বিজ্ঞাপন
করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন