ডিজিটাল পদ্ধতিতে ইসলামিক অর্থব্যবস্থার নিশ্চয়তা দিচ্ছে ‘নগদ ইসলামিক’

‘নগদ ইসলামিক’ অ্যাকাউন্ট তিন বছর ধরে চালু রয়েছে
ছবি: সংগৃহীত

ইসলামিক জীবনধারার সঙ্গে সংগতি রেখে গত তিন বছর ধরে চালু রয়েছে ‘নগদ ইসলামিক’ অ্যাকাউন্ট, যা ডিজিটাল পদ্ধতিতে ইসলামিক অর্থব্যবস্থার নিশ্চয়তা দিয়ে আসছে। বিজ্ঞপ্তি।

ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এর এ ইসলামিক অ্যাকাউন্টটি সম্পূর্ণ শরিয়াহ পর্যবেক্ষক কমিটির তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হয়ে আসছে। ‘নগদ ইসলামিক’ মোবাইল অ্যাকাউন্টটির মাধ্যমে গ্রাহকেরা খুব সহজেই সুদমুক্ত ও শরিয়াহসম্মত উপায়ে নিজস্ব তহবিল পরিচালনা করতে পারছেন, যা তাঁদের ধর্মীয় মূল্যবোধ ও বিধানকে সংরক্ষণ করছে।

সেবাটি নিতে আগ্রহী গ্রাহকেরা খুব সহজেই তাঁদের নিয়মিত ‘নগদ’ অ্যাপকে ইসলামিক অ্যাকাউন্টে রূপান্তর করেছেন। সে ক্ষেত্রে নগদ অ্যাপে ‘আমার নগদ’ অপশনে ক্লিক করে, অ্যাকাউন্টের ধরন হিসেবে ‘নগদ ইসলামিক’ অপশনে ক্লিক করলেই চলমান অ্যাপটি ইসলামি অ্যাকাউন্টে পরিবর্তিত হয়ে যাবে।

‘নগদ’ অ্যাপের রং সবুজ হলেই একজন গ্রাহক বুঝতে পারবেন, তাঁর অ্যাকাউন্টটি সফলভাবে ইসলামিক অ্যাকাউন্টে রূপান্তরিত হয়েছে। ঘরে বসে মাত্র কয়েক সেকেন্ডেই বিনা মূল্যে অ্যাকাউন্টটির সব সেবা উপভোগ করতে পারছেন গ্রাহকেরা।

ইসলামিক শরিয়াহ অনুসারে পরিচালিত হওয়ায় কোনো রকম সুদ ছাড়াই ‘নগদ ইসলামিক’ অ্যাকাউন্টের গ্রাহকেরা নিজের কষ্টার্জিত অর্থ এখানে সঞ্চয় করতে পারছেন। গ্রাহকেরা ডিজিটাল পদ্ধতিতে তাঁদের জাকাত ও সব দান প্রদান করতে পারছেন। এ ছাড়া খুব সহজেই পবিত্র হজ ও ওমরাহর যাতায়াতসহ অন্যান্য খরচ এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে পরিশোধ করা যায়। এই অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে গ্রাহকেরা ঘরে বসেই তাঁদের ইসলামিক জীবন বিমার পেমেন্টও করতে পারছেন।

এ বিষয়ে ‘নগদ’-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাহেল আহমেদ বলেন, ‘আমাদের দেশে শরিয়াহভিত্তিক আর্থিক সেবার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সেটি বিবেচনায় রেখেই তিন বছর আগে আমরা নগদ ইসলামিক অ্যাকাউন্ট চালু করি, যা ব্যাপক সাড়া পেয়েছে। এ সেবার প্রসারে আমরা আরও সচেষ্ট থাকব।’