default-image

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে নানা কর্মসূচি ঘোষণার মধ্য দিয়ে হয়ে গেল চতুর্থ প্রজন্মের পদ্মা ব্যাংক লিমিটেডের টাউন হল মিটিং। যেখানে চলতি বছরের বার্ষিক ব্যবসায়িক কার্যক্রম এবং বর্তমান অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে ভবিষ্যৎ কৌশলগত কর্মপন্থা প্রণয়নসহ সার্বিক প্রবৃদ্ধির বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। এতে খেলাপি ঋণ আদায়, ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা, আমানত ও ঋণ এবং সর্বোচ্চ গ্রাহকসেবা নিশ্চিতকরণে কর্মকর্তাদের দিকনির্দেশনা দেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. এহসান খসরু।

গতকাল শনিবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় ভার্চ্যুয়াল এই টাউন হল মিটিং। সেখানে সভাপতিত্ব করেন পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. এহসান খসরু। পদ্মা ব্যাংক পর্ষদ চেয়ারম্যান চৌধুরী নাফিজ সরাফাত প্রধান অতিথি হিসেবে সভায় যুক্ত হন। টাউন হল সভায় উপস্থিত ছিলেন পদ্মা ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক ফয়সাল আহসান চৌধুরী, বিজনেস হেড জাবেদ আমিন, মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান এম আহসান উল্লাহ খান, সিএফও মো. শরিফুল ইসলাম, এসইভিপি ল’ অ্যান্ড রিকভারি ফিরোজ আলম, রিটেল ব্যাংকিং অ্যান্ড এসএমই বিজনেস হেড খন্দকার জীবানুর রহমান, ব্রাঞ্চেস হেড সাব্বির মোহাম্মদ সায়েম। এ ছাড়া বিভিন্ন বিভাগের ঊর্ধ্বতন ব্যক্তিরাসহ ৫৮ শাখার সব কর্মকর্তা নিজ নিজ কার্যালয় থেকে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হন।

বিজ্ঞাপন

ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. এহসান খসরু করোনার মতো কঠিন এই মহামারিতে সাধারণ জনগণকে ব্যাংকিং সেবা দিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করা কর্মীদের ধন্যবাদ জানান। এহসান খসরু বলেন, কর্মীদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও ইচ্ছাশক্তির জোরেই কোভিড মহামারিতেও খোলা রাখা গেছে পদ্মা ব্যাংকের সব কটি শাখা। তিনি আরও বলেন, পদ্মা ব্যাংকের আজকের এই সফলতা তাঁর কর্মীদের নিরলস পরিশ্রমের ফসল এবং বিজ্ঞ ও নেতৃত্বগুণসম্পন্ন একটি পরিচালনা পর্ষদের কারণে সম্ভব হয়েছে।

কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে যেকোনো পরিস্থিতিতে ব্যাংকের পাশে থেকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন এহসান খসরু। বিজ্ঞপ্তি

করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন