বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হোন্ডা জানিয়েছে, নতুন এই মডেলের বাইক ডিজাইন করা হয়েছে রোবো ফেসড হেডল্যাম্প, শার্প স্কাল্পটেড ফুয়েল ট্যাংক, স্টার্ডি হাগার ফেন্ডার, স্পোর্টি আন্ডার কাউল, আকর্ষণীয় ফ্রন্ট ফর্ক কভার ও ডুয়েল আউটলেট মাফলার দিয়ে। এক্সব্লেডে দেওয়া হয়েছে ডাবল ডিস্ক ব্রেক। বাইকটির সামনে আছে সিঙ্গেল চ্যানেল অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম। সেটি নিরাপদ করতে সামনের চাকায় ২৭৬ মিলিমিটার এবং পেছনের চাকায় ২২০ মিলিমিটার পেডল ডিস্ক সংযোজন করা হয়েছে, যা সহজেই তাপ ছড়িয়ে দিয়ে যেকোনো পরিস্থিতিতে সেরা ব্রেকিংয়ের অভিজ্ঞতা দিতে পারে। অ্যান্টি–লক ব্রেকিং সিস্টেম (এবিএস) তাৎক্ষণিক ব্রেকিংয়ে পর্যাপ্ত নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখে ব্রেকের কার্যকারিতা বাড়িয়ে তোলে। জরুরি পরিস্থিতিতে মোটরসাইকেলটির হ্যাজার্ড সতর্কবার্তা দিতেও সক্ষম।

আজ রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে নতুন মডেলের মোটরসাইকেলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুতসুও উসুই বলেন, চলতি বছর হোন্ডার কারখানায় সম্পূর্ণ নতুন ইঞ্জিন সংযোজন ও এবিএস–সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে। ১৫০ জন পরিবেশকের নেটওয়ার্কের মাধ্যমে দেশের ক্রেতাদের সাশ্রয়ী দামে বাইক দিতে হোন্ডা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
এক্সব্লেডের ফিচার সম্পর্কে বাংলাদেশ হোন্ডার বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট নরেশ কুমার বলেন, ১৫০ সিসির ক্রেতাদের চাহিদা মেটাতে হোন্ডার গবেষণা ও উন্নয়ন দল আধুনিক নকশার পাশাপাশি ডাবল ডিস্ক ও অ্যান্টি–লক ব্রেকিং সিস্টেম (এবিএস) সংযুক্ত করেছে।

সারা দেশের হোন্ডার পরিবেশক বিক্রয় কেন্দ্রে এক্সব্লেডের সিঙ্গেল ডিস্কের বাইক পাওয়া যাচ্ছে ১ লাখ ৭৩ হাজার ৯০০ টাকায়। আর ডাবল ডিস্কের মোটরসাইকেলের দাম হবে ১ লাখ ৯২ হাজার টাকা। মোটরসাইকেলের গ্রাহকেরা চারটি ফ্রি সার্ভিসের সঙ্গে ২ বছর কিংবা ২০ হাজার কিলোমিটারের একটি ওয়ারেন্টি পলিসি পাচ্ছেন।

করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন