বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দেশজুড়ে কেএফসির সব দোকানে এই অফার পাওয়া যাবে। শুধু লেইস পাস্তাজের ১০ টাকা ও ২০ টাকা এবং কুড়কুড়ের ১০ টাকা ও ২৫ টাকার প্রচারণা প্যাকের ক্ষেত্রে এই অফার প্রযোজ্য। কেএফসি আউটলেটের বাইরে ভোজন রসিকদের লম্বা লাইনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত হওয়ার পর বিষয়টি অনেকের নজর কাড়ে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

পেপসিকোর কান্ট্রি ম্যানেজার (বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও নেপাল) প্রণব মেহতা বলেন, ‘খাবারের স্বাদ বাড়িয়ে ভোক্তাদের হাতে আরও মুখরোচক খাবার তুলে দেওয়াই আমাদের লক্ষ্য। কেএফসির সঙ্গে অংশীদারত্ব করতে পেরে আমরা আনন্দিত। চমৎকার এই অফারের মাধ্যমে ভোক্তা সন্তুষ্টি অর্জনে আমি আশাবাদী।’

ট্রান্সকম ফুডস লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী অমিত দেব থাপা বলেন, ‘ফ্রাইড চিকেনের পাশাপাশি বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্ন্যাক ব্র্যান্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পেরে আমরা আনন্দিত। পেপসিকোর সঙ্গে এই অংশীদারত্বের ফলে দেশের ছয় জেলার ২৬টি দোকানে ভোক্তাদের আরও সুস্বাদু “ফিঙ্গার লিকিং গুড” অভিজ্ঞতা দেওয়াই আমাদের মূল লক্ষ্য।’

অফারটি পেতে গ্রাহকদের যেকোনো কেএফসি আউটলেটে ন্যূনতম একটি চিকেন বা মুরগির আইটেম কিনে লেইস পাস্তাজ্ বা কুড়কুড়ে চিপসের খালি প্রচারণা প্যাক জমা দিতে হবে। প্রতিটি খালি প্রচারণা প্যাকের বিনিময়ে ১৪৯ টাকা মূল্যের একটি চিকেন পাবেন ভোক্তারা। চিকেন ডিস কেনার জন্য একজন ভোক্তা প্রতিবার সর্বোচ্চ তিনটি খালি প্যাকেট জমা দিতে পারবেন। অফারটি দোকানে বসে খাওয়া ও বাসায় নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত অফারটি চলবে।

করপোরেট সংবাদ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন