default-image

চুয়াডাঙ্গার দর্শনা বন্দর দিয়ে ভারত থেকে রেলপথে বেসরকারি উদ্যোগে আরও ২ হাজার ৪৭৮ মেট্রিক টন চাল এসেছে। ৪২ ওয়াগনে (এক র‌্যাক) চালের এই চালান গত বুধবার দিবাগত রাতে পশ্চিমবঙ্গের গেদে হয়ে দর্শনা বন্দরে পৌঁছায়।

দর্শনা বন্দরে কোয়ারেন্টিনসহ আনুষ্ঠানিকতা শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার চালের চালানটি যশোরের নওয়াপাড়ায় পাঠানো হয়। যশোরের নওয়াপাড়ার মজুমদার ট্রেডার্স সরকারের অনুমতি নিয়ে ঋণপত্রের (এলসি) মাধ্যমে চাল আমদানি করেছে। এ নিয়ে এই বন্দর দিয়ে সম্প্রতি ভারত থেকে আমদানি করা চালের পরিমাণ দাঁড়াল ৮৪ হাজার ৫৭৮ মেট্রিক টন।

দর্শনা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আতিয়ার রহমানের প্রতিষ্ঠান আমদানিকারকের পক্ষে বন্দরে দায়িত্ব পালন করছে।

আতিয়ার রহমান প্রথম আলোকে জানান, প্রতি মেট্রিক টন নন–বাসমতী (মোটা) চালের আমদানি মূল্য পড়েছে ৩৬৫ ইউএস ডলার। এক ডলার সমান ৮৪ দশমিক ৭৭ টাকা ধরে প্রতি মেট্রিক টনের মূল্য পড়েছে ৩০ হাজার ৯৪১ টাকা।

দেশের চালের বাজার স্থিতিশীল রাখতে সরকারি সিদ্ধান্তে গত ১ জানুয়ারি থেকে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত দর্শনা বন্দর হয়ে রেলপথে ভারত থেকে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে ৮২ হাজার ১০০ মেট্রিক টন চাল আমদানি করা হয়েছে। যার মধ্যে চলতি এপ্রিল মাসেই আমদানি হয়েছে প্রায় ২৪ হাজার মেট্রিক টন। এবার আরও ২ হাজার ৪৭৮ মেট্রিক টন চাল এল।

বিজ্ঞাপন
অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন