default-image

রাশিয়া ও চীনের দুটি ভ্যাকসিন বাংলাদেশি ওষুধ কোম্পানির মাধ্যমে উৎপাদনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে ভ্যাকসিন উৎপাদনের এ প্রস্তাব নীতিগতভাবে অনুমোদিত হয়েছে। বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘শুরু থেকেই বলে আসছি যে ভ্যাকসিনের বিকল্প উৎসের কথা আমাদের চিন্তা করতে হবে। রাশিয়া ও চীনের ভ্যাকসিন উৎপাদন নিয়ে আলোচনা চলছে। তার মানে আবার এই নয় যে প্রথম উৎস (ভারতের সেরাম) বাতিল হয়ে গেছে। প্রথম উৎস থেকে ভ্যাকসিন আনার চেষ্টাও আমরা করে যাচ্ছি। বিকল্প হিসেবে চায়না ও রাশিয়ার ভ্যাকসিন নিয়ে আলোচনা চলছে।’

বিজ্ঞাপন

অর্থমন্ত্রী এ বিষয়ে বিশদ কথা না বলেই সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলন শেষ করেন। পরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শাহিদা আক্তার বলেন, ‘রাশিয়ার স্পুতনিক-ভি এবং চীনের টিকা দেশীয় প্রতিষ্ঠানে উৎপাদনের প্রস্তাব নীতিগতভাবে অনুমোদিত হয়েছে। দেশীয় কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের রাশিয়া ও চীনের ভ্যাকসিন উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে।’

বাংলাদেশি কোন কোন কোম্পানি এ উৎপাদন করবে, এ বিষয়ে জানতে চাইলে অতিরিক্ত সচিব শাহিদা আক্তার বলেন, এটি এখনো বলা যাচ্ছে না।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন