বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় আজ বৃহস্পতিবার আমদানি-রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দপ্তরকে চিঠি দিয়ে নতুন করে ৬৩ প্রতিষ্ঠানকে ৪০ টন করে ২ হাজার ৫২০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দেওয়ার কথা জানায়। এক টনে এক হাজার কেজি। সেই হিসাবে ইলিশ যাবে মোট ২৫ লাখ ২০ হাজার কেজি। প্রতি কেজি ৯০০ টাকা ধরে হিসাব করলে মোট ২২৬ কোটি ৮০ লাখ টাকার ইলিশ যাবে ভারতে।

তবে ইলিশ রপ্তানির ক্ষেত্রে কয়েকটি শর্ত বেঁধে দিয়েছে মন্ত্রণালয়। বলা হয়েছে, বিদ্যমান রপ্তানি নীতি ২০১৮-২১-এর বিধিবিধান মানতে হবে। শুল্ক কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে কায়িক পরীক্ষা করাতে হবে রপ্তানি করা ইলিশের। প্রতিটি চালান (কনসাইনমেন্ট) শেষে রপ্তানিসংক্রান্ত কাগজপত্র দাখিল করতে হবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে।

এ ছাড়া অনুমোদিত পরিমাণের চেয়ে বেশি ইলিশ রপ্তানি করা যাবে না। অনুমতির মেয়াদ কার্যকর থাকবে আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত। অনুমতি কোনোভাবেই হস্তান্তরযোগ্য নয়। অনুমোদিত রপ্তানিকারক ছাড়া ঠিকায় (সাব-কন্ট্রাক্ট) রপ্তানি করা যাবে না।

এদিকে ইলিশের প্রজননের জন্য আগামী ৪ অক্টোবর থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মৎস্য অধিদপ্তর। ২৬ অক্টোবর থেকে আবার ইলিশ ধরা যাবে। গত বছর ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ইলিশ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। এবার তা ১০ দিন এগিয়ে আনা হয়েছে।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন