default-image

সদ্য সমাপ্ত মার্চ মাসে যাঁরা পণ্য ও সেবা কেনার বিপরীতে ভ্যাট দিয়েছেন, তাঁরা নিজ নিজ কুপন নম্বর মিলিয়ে নিন। গত সোমবার অনুষ্ঠিত ভ্যাটের লটারির ড্রয়ে প্রথম বিজয়ীর কুপন নম্বর হলো—০০২৩২১ এক্সএইচকিউডিজেভিবি ১৭৮। বিজয়ী পাবেন ১ লাখ টাকা। দ্বিতীয় পুরস্কার বিজয়ীর কুপন নম্বর ০০২৩২১ আরইউএলওয়াইএফবিআর ৭০০। তিনি পাবেন ৫০ হাজার টাকা।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলনকক্ষে ভ্যাট লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এনবিআরের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম। গত জানুয়ারি মাস থেকে প্রতি মাসে ১০১ জন ভ্যাটদাতাকে এই পুরস্কার দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

প্রথম বিজয়ী ১ লাখ টাকা, দ্বিতীয় বিজয়ী ৫০ হাজার টাকা, তৃতীয় বিজয়ী হিসেবে ৫ জন ২৫ হাজার টাকা করে পাবেন। বাকি ৯৪ জনের প্রত্যেকের পুরস্কারের পরিমাণ ১০ হাজার টাকা। ইএফডি মেশিনের মাধ্যমে বেচাকেনায় উৎসাহিত করতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) ভ্যাট বিভাগ এই লটারির আয়োজন করেছে।

বিজ্ঞাপন

নতুন ভ্যাট আইন চালু হয় ২০১৯ সালের জুলাই মাসে। নতুন আইনে অনলাইন ব্যবস্থাকে গুরত্ব দেওয়া হয়। কিন্তু অনলাইনে ভ্যাট ব্যবস্থা তৈরির উদ্যোগ তেমন একটা এগোয়নি। তবে ২৪ ধরনের ব্যবসায় ইএফডি মেশিন বা ভ্যাটের মেশিন বসানো বাধ্যতামূলক করা হয়। এ তালিকায় আছে মিষ্টির দোকান, খাবারের রেস্তোরাঁ, ডেকোরেটরস, বিউটি পারলার, জিম বা ফিটনেস সেন্টার, তৈরি পোশাকের দোকান, জুয়েলারি শপ, কোচিং সেন্টার, ডিপার্টমেন্ট স্টোর, সিনেমা হল, বিজ্ঞাপনী সংস্থা ইত্যাদি।

ভ্যাট দিয়ে ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) বা ভ্যাটের মেশিন থেকে ক্রেতারা যেসব রসিদ পান সেগুলোর নম্বরের ভিত্তিতে লটারি হয়। তাই জিততে হলে ইএফডি মেশিন বা ভ্যাটের মেশিন আছে, এমন দোকান থেকেই পণ্য বা সেবা কিনতে হবে। হাতে লেখা রসিদ হলে হবে না। প্রতি মাসের প্রথম থেকে শেষ দিনের বেচাকেনার রসিদের ওপর লটারি অনুষ্ঠিত হয়।

এবারে যাঁরা বিজয়ী হয়েছেন তাঁদের চলতি মার্চের শেষ কার্যদিবসের মধ্যে পুরস্কারের জন্য আবেদন করতে হবে। এরপর কুপন নম্বর মিলিয়ে দেখাসহ যাবতীয় বিষয় যাচাই–বাছাই করা হবে। আবেদনকারীর নাম, সই, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), চালান নম্বর, ইস্যুর তারিখ—আবেদনে এসব তথ্য থাকতে হবে।

প্রথম তিনটি পুরস্কার এনবিআর থেকে দেওয়া হবে। বাকি বিজয়ীরা ভ্যাটের যে দপ্তরে আবেদন করবেন, সেখান থেকে পুরস্কারগুলো দেওয়া হবে। পুরস্কারের অর্থ চেকের মাধ্যমে পাবেন বিজয়ীরা।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন