বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নগরের চান্দগাঁও থেকে মেলায় এসেছিলেন অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা রাশেদুল আলম। সিপিডিএল, জুমাইরা ও ইক্যুইটির স্টলের
কর্মীদের কাছ থেকে ফ্ল্যাটের দর ও সুযোগ-সুবিধার কথা জানতে চাচ্ছিলেন তিনি। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, দাম ও সুযোগ-সুবিধা—এই দুই বিষয় মিলে গেলে মেলায় ফ্ল্যাটের বুকিং দেবেন বলে ভাবছেন।

মেলায় আসা ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ক্রেতাদের চাওয়া ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকার ফ্ল্যাট। তবে ভালো জায়গায় এখন মাঝারি আকারের ফ্ল্যাটের দরও ৮০ থেকে ৯০ লাখ টাকা। সুযোগ-সুবিধা বাড়লে তা কোটি টাকার বেশি।

মেলায় উইকন প্রপার্টিজের স্টলে কথা হয় কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা আশরাফুল ইসলামের সঙ্গে। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘প্রথমবার মেলায় এসে গ্রাহকদের ভালো সাড়া পাচ্ছি। শুধু চট্টগ্রামে নয়, সারা দেশে উইকন প্রপার্টিজ প্রথম স্বয়ংসম্পূর্ণ আবাসন কোম্পানি। নির্মাণে নান্দনিকতা ও প্রকল্পের কাজ দ্রুত শেষ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে কাজ করছি আমরা।’

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলছে। মেলা শেষ হবে আজ রোববার।

রিহ্যাব চট্টগ্রাম কমিটির সভাপতি আবদুল কৈয়ূম চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, নির্মাণ উপকরণের দাম বাড়ছে। মেলা উপলক্ষে কোম্পানিগুলো ফ্ল্যাটের দর সমন্বয় করেনি। অর্থাৎ, এবারের মেলায় পর্যন্ত তুলনামূলক কম দামে ফ্ল্যাট কেনার সুযোগ আছে। এই সুযোগ নিতে প্রকৃত ক্রেতারাই মেলায় আসছেন।

অর্থনীতি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন