default-image

পদত্যাগের পর ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে পুনরায় দায়িত্ব পালনে সম্মত হয়েছেন তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচনের নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান সৈয়দ ফরহাত আনোয়ার। এতে নির্বাচন ঘিরে যে জটিলতার সৃষ্টি হয়েছিল, সেটি নিরসন হলো।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিজিএমইএর সভাপতি রুবানা হক আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে প্রথম আলোকে বলেন, ‘নির্বাচনকেন্দ্রিক দুই জোট সম্মিলিত পরিষদ ও ফোরামের নেতারা এবং আমি ব্যক্তিগতভাবে সৈয়দ ফরহাত আনোয়ারকে নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ জানাই। কারণ, নির্বাচনের মাত্র তিন সপ্তাহ বাকি। এই মুহূর্তে তিনি সরে দাঁড়ালে জটিলতার সৃষ্টি হতো। শেষ পর্যন্ত তিনি আমাদের অনুরোধ রেখেছেন, দায়িত্ব পালনে সম্মত হয়েছেন।’

বিজিএমইএর ২০২১-২৩ মেয়াদের পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচনের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (আইবিএ) পরিচালক সৈয়দ ফরহাত আনোয়ারকে নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যান করা হয়। গত দুই মাস তাঁর নেতৃত্বে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা, ভোটার তালিকা, প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা, যাচাই-বাছাই, চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকাসহ বিভিন্ন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। হঠাৎ করে গতকাল বুধবার ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে বিজিএমইএর সভাপতির কাছে লিখিতভাবে পদত্যাগপত্র জমা দেন সৈয়দ ফরহাত আনোয়ার। সেখানে তিনি লিখেন, ব্যক্তিগত কারণে তাঁর পক্ষে নির্বাচন বোর্ডের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করা সম্ভব না।

বিজ্ঞাপন

জানতে চাইলে সম্মিলিত পরিষদের দলনেতা ও সভাপতি প্রার্থী ফারুক হাসান প্রথম আলোকে বলেন, ‘নির্বাচনে যেন কোনো সমস্যা না হয়, সে জন্য আমাদের দলের পক্ষ থেকে সৈয়দ ফরহাত আনোয়ারকে দায়িত্ব চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।’ তাঁর পদত্যাগের সিদ্ধান্ত বদল করাকে ইতিবাচক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

নির্বাচনকেন্দ্রিক জোট সম্মিলিত পরিষদ ও স্বাধীনতা পরিষদ জোটবদ্ধভাবে নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় আগামী ৪ এপ্রিল বিজিএমইএর পরিচালনা পরিষদ নির্বাচনের লড়াইয়ে থাকছে মূলত দুই দল বা জোট। সংগঠনের ঢাকা ও চট্টগ্রামের ৩৫ পরিচালক পদের বিপরীতে সম্মিলিত পরিষদ ও ফোরামের ৭০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। সম্মিলিত পরিষদের দলনেতা ফারুক হাসান ও ফোরামের নেতৃত্ব দিচ্ছেন এ বি এম সামসুদ্দিন। বিজিএমইএর বর্তমান সভাপতি রুবানা হক ও তাঁর ছেলে নাভিদুল হক ফোরামের হয়ে নির্বাচন করছেন।

শিল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন