default-image

করোনাভাইরাসের আর্থিক ক্ষতি পোষাতে বিভিন্ন খাতের জন্য যে প্রণোদনা প্যাকেজে ঘোষণা করা হয়েছে, সেগুলোর ঋণের সুদহার ৫ শতাংশের কম। এ কারণে কুটির, মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তা (সিএমএসএমই) খাতের জন্য সরকার এবং এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) প্রকল্পেরও ঋণের সুদহার কমানো হয়েছে। আগে এই সুদহার ছিল ৯ শতাংশ, গতকাল তা কমিয়ে ৬ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন ও পুরোনো সব ঋণে নতুন এই সুদহার কার্যকর হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক গতকাল সোমবার এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

ব্যাংক–সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, প্রণোদনার আওতায় কম সুদে ঋণ বিতরণের কারণে বেশি সুদের সাধারণ ঋণ বিতরণ প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। আবার বিভিন্ন দাতা সংস্থার আর্থিক সহায়তা তহবিলের আওতায় বিভিন্ন খাতের পুরোনো কিছু ঋণ রয়েছে, যেগুলোর সুদহার এখনো ৬ শতাংশের বেশি। ফলে গ্রাহকেরা এসব ঋণ নিতে খুব বেশি আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। এ কারণে পুনঃ অর্থায়ন ঋণের সুদহার কমাতে শুরু করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

জানা গেছে, সিএমএসএমই খাতের জন্য সরকার ও এডিবির প্রকল্পের আওতায় গত অক্টোবর পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার এসএমই প্রতিষ্ঠান ঋণ পেয়েছে। এ খাতে ঋণের পরিমাণ প্রায় এক হাজার কোটি টাকা। এ তহবিলের আওতায় ঋণ দিতে ৩৩টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ।

বিজ্ঞাপন

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সরকার এবং এডিবির অর্থায়নে সেকেন্ড স্মল অ্যান্ড মিডিয়াম সাইজড এন্টারপ্রাইজ ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের (এসএমইডিপি-২) আওতায় ঋণের সুদহার ৯ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৬ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন থেকে এ প্রকল্পের আওতায় সব ধরনের ঋণের ক্ষেত্রে সুদহার গ্রাহক পর্যায়ে হবে ৬ শতাংশ। ব্যাংকগুলো ২ শতাংশ সুদে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে পুনঃ অর্থায়নের টাকা নিতে পারবে।

এদিকে করোনাভাইরাসের পর এসএমই খাতের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক তিনটি প্রকল্পের ঋণের সুদহার কমিয়ে ৭ শতাংশ নির্ধারণ করেছে। এরপরও এসব ঋণ বাড়ছে না। এর বাইরে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হলে সিএমএসএমই খাতের চলতি মূলধন সুবিধার জন্য ২০ হাজার কোটি টাকা তহবিল গঠন করা হয়। এ ঋণের সুদহার ৯ শতাংশ, তবে গ্রাহকদের দিতে হচ্ছে ৪ শতাংশ। বাকি ৫ শতাংশ সরকার ভর্তুকি হিসেবে দিচ্ছে। এই তহবিলের প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা ঋণ বিতরণ হয়েছে। ঋণ পেয়েছেন প্রায় ৫২ হাজার উদ্যোক্তা।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, এসএমই খাতের উদ্যোক্তারা যাতে সহনীয় সুদে ঋণসুবিধা নিতে পারে, এ জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই উদ্যোগ নিয়েছে।

মন্তব্য করুন