default-image

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন তৈরি পোশাকশিল্প ব্যবসায়ী মাহমুদ আলী (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি চট্টগ্রামের জেএমএস গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। তাঁর বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মাহমুদ আলীর মৃত্যু হয়।

তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সাবেক সহসভাপতি মোহাম্মদ নাছির আজ শুক্রবার প্রথম আলোকে বলেন, মাহমুদ আলী গতকাল রাতে এভারকেয়ার হাসপাতালে মারা গেছেন।

জানা যায়, গত ৩০ মার্চ করোনা শনাক্ত হয় মাহমুদ আলীর। সে সময় তিনি চট্টগ্রামে নিজ বাড়িতে ছিলেন। চিকিৎসকের পরামর্শে প্রথমে বাড়িতে চিকিৎসা নেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ২ এপ্রিল তাঁকে ঢাকায় এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই দিনই তাঁকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

জেএমএস গ্রুপের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ১৯৮৫ সালে ট্রেডিং ব্যবসা শুরু করেন মাহমুদ আলী। ১৯৯৪ সালে ১৪০টি মেশিন আর ৩০০ শ্রমিক নিয়ে ফ্যাশন প্রোডাক্টস লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানা করেন। বর্তমানে জেএমএস গ্রুপের নয়টি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার মধ্যে তিনটি পোশাক কারখানা, যেখানে সাত হাজারের বেশি শ্রমিক কাজ করেন।

মাহমুদ আলী নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও হাতিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ছিলেন।

তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন।

আজ জুমার নামাজের পর চট্টগ্রামের জমিয়তুল ফালাহ মসজিদ প্রাঙ্গণে তাঁর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শিল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন