বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
চট্টগ্রামের মীরসরাই ও সীতাকুণ্ড উপজেলা আর ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় বিস্তৃত প্রায় ৩৩ হাজার একর জমির ওপর গড়ে উঠছে এই শিল্পনগর। বিশাল এই শিল্পনগরে দৈনিক পানির চাহিদা প্রক্ষেপণ করা হয়েছে ১ হাজার ১৩ মিলিয়ন লিটার।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর বাংলাদেশের বৃহত্তম ও প্রথম পরিকল্পিত শিল্পনগর। চট্টগ্রামের মীরসরাই ও সীতাকুণ্ড উপজেলা আর ফেনীর সোনাগাজী উপজেলায় বিস্তৃত প্রায় ৩৩ হাজার একর জমির ওপর গড়ে উঠছে এই শিল্পনগর। বিশাল এই শিল্পনগরে দৈনিক পানির চাহিদা প্রক্ষেপণ করা হয়েছে ১ হাজার ১৩ মিলিয়ন লিটার। বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে পানির সংকট নিয়ে উদ্যোক্তারা নিজেদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছে বেজাকে। পানির সংকট নিয়ে গত ৩ জুলাই দৈনিক প্রথম আলোয় এক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

বিনিয়োগকারীদের বর্তমান চাহিদা বিবেচনা করে বেজা স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। স্বল্পমেয়াদি পরিকল্পনার মধ্যে আছে ৪০টি গভীর নলকূপ স্থাপনের মাধ্যমে প্রতিদিন ২০ মিলিয়ন লিটার (এমএলডি) পানি উত্তোলন করা এবং ফেনীর মুহুরি রিজার্ভার থেকে ৫০ এমএলডি সারফেস ওয়াটার বা ভূপৃষ্ঠস্থ পানি ব্যবহার।

গতকালের সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরের পানির চাহিদা পূরণে চাঁদপুর সংলগ্ন মেঘনা-ডাকাতিয়া নদীর মিলনস্থল থেকে পাইপলাইনের মাধ্যমে পানি আনতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর প্রকল্প গ্রহণ করবে। এর মাধ্যমে প্রতিদিন ১ হাজার মিলিয়ন লিটার (এমএলডি) পানি সরবরাহ করা হবে। ছোট ফেনী নদী থেকে প্রতিদিন ৪০ এমএলডি পানি উত্তোলনে প্রকল্প নেওয়া হবে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে পানি নিয়ে সমস্যা হবে না। বেজা মানসম্মত পানি সরবরাহে বদ্ধপরিকর।
শেখ ইউসুফ হারুন, নির্বাহী চেয়ারম্যান, বেজা

এ ছাড়া বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে চলমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রাথমিক পর্যায়ে প্রতিদিন ৩০ এমএলডি পানি ডিস্যালিনেশন প্ল্যান্টের মাধ্যমে সরবরাহের পরিকল্পনা আছে।

বৈঠকে বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে পানি নিয়ে সমস্যা হবে না। বেজা মানসম্মত পানি সরবরাহে বদ্ধপরিকর।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন