default-image

বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ বা বেজার এক দরজায় সেবায় (ওএসএস) নতুন আরও ১১টি অনলাইন পরিষেবা যুক্ত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে নতুন এসব পরিষেবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব আহমদ কায়কাউস। নতুন যে ১১টি সেবা বেজার ওএসএসে যুক্ত হয়েছে তার মধ্যে ৯টিই পরিবেশবিষয়ক। আর এসব সেবার প্রধানকারী সংস্থা পরিবেশ অধিদপ্তর।

বেজা জানিয়েছে, দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এক জায়গা থেকে শিল্প স্থাপনের প্রয়োজনীয় সব সুবিধা দিতে ওয়ান–স্টপ সার্ভিস আইন, ২০১৮ পাস করা হয়। এ আইনের মাধ্যমে সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে আইনি বাধ্যবাধকতার আওতায় আনা হয়। আইনটি পাস হওয়ার পর থেকে শিল্প স্থাপনে বিভিন্ন সংস্থার দেওয়া প্রয়োজনীয় সেবার মধ্য থেকে ২১টিকে বেজার ওএসএস–ভুক্ত করা হয়। নতুন ১১টি যুক্ত হওয়ার ফলে এখন সেবার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩২টিতে।

বিজ্ঞাপন

নতুন ১১টি সেবার যুক্ত হওয়া উপলক্ষে বেজা আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব আহমদ কায়কাউস বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ জাতি হিসেবে গড়ে তুলতে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। এ কারণে মাথাপিছু আয় ১২ হাজার মার্কিন ডলারে উন্নীত করতে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বিডার চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, বেজার ওএসএস সেবাগুলো এ দেশে–বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

সভাপতির বক্তব্যে বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী বলেন, ওএসএস শুধু কাগজে-কলমে নয়, বাস্তবিক অর্থেই বিনিয়োগকারীদের ওয়ান–স্টপ সার্ভিস নিশ্চিত করছে। নতুন সংযোজিত সেবার মাধ্যমে বিনিয়োগ আরও বাড়বে বলে মনে করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মাকসুদুর রহমান পাটোয়ারি, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের সচিব জিয়াউল হাসান, পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি রুবানা হক প্রমুখ।

নতুন সেবা যুক্ত করার পাশাপাশি অনুষ্ঠানে সিঙ্গাপুরভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ইন্টার এশিয়া গ্রুপ প্রাইভেট লিমিটেডের সঙ্গে সাবরাং ট্যুরিজম পার্কের জমি বরাদ্দ চুক্তি হয়। চুক্তির আওতায় প্রতিষ্ঠানটি সাবরাং টুরিজম পার্কে ৯ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগে সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, জাদুঘর, ওপেন এয়ার অ্যাম্ফিথিয়েটার, বিনোদন পার্ক, হোটেল, রিসোর্ট ইত্যাদি তৈরি করবে। এতে ছয় হাজার লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে বলে আশা প্রকাশ করা হচ্ছে।

এ ছাড়া ডাটা সফটের সহযোগী প্রতিষ্ঠান গ্রেট আউটডোর অ্যান্ড অ্যাডভেঞ্চারসের সঙ্গে সাবরাং ট্যুরিজম পার্ক কর্তৃপক্ষ ও বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে নিরবচ্ছিন্ন ও মানসম্পন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহে পাওয়ার গ্রিডসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানির সঙ্গে জমি বরাদ্দসংক্রান্ত চুক্তি হয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0