রাজধানীর মতিঝিলে এফবিসিসিআই কার্যালয়ে গতকাল শনিবার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সংগঠনের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। তিনি বলেন,এলডিসি-পরবর্তী পরিবর্তিত বৈশ্বিক চাহিদা মোকাবিলায় খাতভিত্তিক সক্ষমতা বৃদ্ধি সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দেশীয় শিল্পের সক্ষমতা বাড়াতে একটি ইনোভেশন সেন্টার প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে এফবিসিসিআই। আগামী মাসে এ-সংক্রান্ত ধারণাপত্র সরকারের কাছে জমা দেওয়া হবে। বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পুনঃপ্রক্রিয়াজাতকরণ নিয়ে এফবিসিসিআইয়ের সঙ্গে কাজ করছে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়। কার্যক্রমটি শেষ হলে বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন ও পুনঃপ্রক্রিয়াজাত পণ্যের উৎপাদন বাড়বে।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে এফবিসিসিআইয়ের আয়োজনে চলমান ১৬ দিনব্যাপী ‘বিজয়ের ৫০ বছর: লাল সবুজের মহোৎসব’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তুলে ধরেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি। তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণে বিভিন্ন পদক্ষেপের পাশাপাশি দেশ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও লাখো শহীদের প্রতি ভালোবাসা ও কৃতজ্ঞতাবোধের প্রকাশ হিসেবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে মহোৎসব করছে এফবিসিসিআই।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী, সহসভাপতি এম এ মোমেন, মো. আমিনুল হক শামীম, মো. আমিন হেলালী, মো. সালাহউদ্দিন আহমেদ, এম এ রাজ্জাক খান প্রমুখ।