এই নাগরিক শ্রেণি শুধু বাসস্থান চান না, তারা চান একটি কমিউনিটিভিত্তিক ব্যবস্থা। তাই এ ধরনের কমিউনিটি উন্নয়নে রূপায়ন সিটির যাত্রা শুরু। এ ধরনের নতুন উদ্যোগে ব্যবসায়িক ঝুঁকি থাকে। তাই আমাদের প্রকল্পটি সম্পর্কে মানুষের মধ্যে বহুদিন ধরে প্রচারণা চালানো হয়েছে। এরপর ক্রেতারা সাড়া দিতে শুরু করেন। ক্রেতারা তাঁদের সন্তান ও পরিবারের সদস্যদের একটি উন্নত জীবনাচার দিতে চান।

এখানে ক্রেতারা শুধু ফ্ল্যাট কিনছেন না; একটি গুণগত মানসম্পন্ন এলাকার বাসিন্দা হচ্ছেন। যেখানে স্কুল, বাজারঘাট, মসজিদ, চিকিৎসাকেন্দ্র সবই থাকবে। মানুষের জীবনের যদি বিকাশ না ঘটে, তাহলে সমাজ বা দেশ কীভাবে এগিয়ে যাবে?
ঝুঁকি এড়াতে শুধু অভিজাত শ্রেণি নয়; মধ্যবিত্ত ও উচ্চ মধ্যবিত্তের জন্যও আমরা ফ্ল্যাট বানাচ্ছি। এ ছাড়া ফ্ল্যাটের টাকা পরিশোধে কিস্তি সুবিধা দেওয়ায় অনেকেই আগ্রহী হয়েছেন। আমরা ২০২৩ সালের মধ্যে আবাসিক ফ্ল্যাটগুলোর কাজ শেষ করতে পারব। আর বাণিজ্যিক ভবনগুলোর কাজ শেষ হতে আরও কয়েক বছর সময় লাগবে।

শিল্প থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন