default-image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে নেওয়া পদক্ষেপের অংশ হিসেবে আজ সোমবার থেকে আগামী সাত দিন দুই ঘণ্টা লেনদেন হবে শেয়ারবাজারে। এ অবস্থায় আজ প্রথম এক ঘণ্টার লেনদেনে সূচক বাড়তে দেখা যাচ্ছে শেয়ারবাজারে। দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসইএক্স) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ৮৮ পয়েন্ট। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই বেড়েছে ১৯২ পয়েন্ট।

ডিএসইতে আজ এ সময় পর্যন্ত হাতবদল হওয়া শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২২৪টির, কমেছে ১৩টির দর, অপরিবর্তিত আছে ৫৬টির দর। এ সময় পর্যন্ত লেনদেন হয়েছে ১০০ কোটি টাকার।

গত শনিবার করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় এক সপ্তাহের জন্য লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। আর এ ঘোষণায় গতকাল সূচকের একটানা পতন লক্ষ করা যায়। লেনদেন শেষে ডিএসইএক্স কমে ১৮১ পয়েন্ট। পরে পতন ঠেকাতে শেয়ারবাজারে ঋণসুবিধা বাড়ানোর সিদ্ধান্তের কথা জানায় পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ফলে এখন থেকে বিনিয়োগকারীরা শেয়ারের বিপরীতে আগের চেয়ে বাড়তি ঋণ নিতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন

সিদ্ধান্তে বলা হয়, দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭ হাজার পয়েন্টের নিচে থাকবে, তত দিন বিনিয়োগকারীরা ১ অনুপাত শূন্য ৮ শতাংশ হারে ঋণ পাবেন, অর্থাৎ ১০০ টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে সর্বোচ্চ ৮০ টাকা ঋণ পাবেন। বর্তমানে ১০০ টাকার বিপরীতে বিনিয়োগকারীরা সর্বোচ্চ ৫০ টাকা ঋণসুবিধা পান। এখন সেটি বাড়িয়ে শূন্য দশমিক ৮ শতাংশ করা হয়েছে। তবে ডিএসইর প্রধান সূচকটি ৭ হাজার ছাড়িয়ে গেলে ঋণের হার কমে শূন্য দশমিক ৫ শতাংশে নেমে আসবে।

এ সিদ্ধান্ত আসায় আজ লেনদেনের শুরু থেকে দুই শেয়ারবাজারে সূচক ইতিবাচক অবস্থানে আছে।

শেয়ারবাজার থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন