default-image

শেয়ারবাজারে লেনদেনের জন্য ঘরে বসে বিও (বেনিফিশারি ওনার্স) হিসাব খোলার সুবিধা চালু হয়েছে। আজ মঙ্গলবার এ সুবিধা চালু করা হয়েছে। প্রথমে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে বসবাসকারী একজন প্রবাসী বাংলাদেশি ও দেশে বসবাসকারী একজন বিনিয়োগকারীর হিসাব খোলার মাধ্যমে এ সুবিধা চালু করা হয়।

এ উপলক্ষে আজ দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিএসইসি কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অনলাইনে বিও হিসাব খোলার সুবিধাটির আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন সংস্থাটির কমিশনার শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে শেয়ার ও বিও হিসাব সংরক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিডিবিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক শুভ্র কান্তি চৌধুরী।

এর আগে আজই দুবাইয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রবাসী এক বাংলাদেশি বিনিয়োগকারীর বিও হিসাব খোলার এ কার্যক্রম চালু করেন বিএসইসির চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম। সেখানে আজ শুরু হয়েছে শেয়ারবাজার নিয়ে চার দিনব্যাপী রোড শো।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, সিডিবিএলের সহায়তায় অনলাইনে বিও হিসাব খোলার নতুন ব্যবস্থাটি চালু করা হয়েছে। নিয়ন্ত্রক সংস্থার নির্দেশনায় মূল্য সংযোজন সেবা বা ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস হিসেবে সিডিবিএল এ ব্যবস্থা তৈরি করেছে। কোম্পানির প্রাথমিক গণপ্রস্তাব বা আইপিও হোক অথবা সেকেন্ডারি বাজারে বিনিয়োগ-শেয়ারবাজারে শেয়ার কিনতে হলে বিও হিসাব লাগবেই। সেই বিও হিসাব খোলাকে সহজ করতেই পুনর্গঠিত বিএসইসির বর্তমান কমিশন অনলাইনে বিও হিসাব খোলার সুবিধাটি চালুর উদ্যোগ নেয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) সহযোগী প্রতিষ্ঠান ইউসিবি স্টক ব্রোকারেজে আজ মঙ্গলবার দেশ-বিদেশ থেকে দুজন বিনিয়োগকারী অনলাইনে বিও হিসাব খোলেন। তাঁদের একজন ঢাকার তেজগাঁও এলাকার পূর্ব নাখালপাড়ার বাসিন্দা বিপ্লব সাহা ও অন্যজন দুবাইপ্রবাসী চাঁদপুরের সিদ্দিকুর রহমান। প্রথম দিনে শুধু ইউসিবি স্টক ব্রোকারেজ হাউসই অনলাইনে বিও হিসাব খোলার এ ব্যবস্থায় সিডিবিএলের সঙ্গে সংযুক্ত ছিল। ধীরে ধীরে অন্য ব্রোকারেজ হাউসগুলোও এ ব্যবস্থার সঙ্গে যুক্ত হবে। তখন বিনিয়োগকারীরা তাঁদের পছন্দের ব্রোকারেজ হাউসে বিও হিসাব খোলার সুযোগ পাবেন।

জানা গেছে, বর্তমানে একেক ব্রোকারেজ হাউস বিও হিসাব খোলার ক্ষেত্রে একেক রকম ফি বা মাশুল নেয়। ব্রোকারেজ হাউসভেদে এ মাশুল ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত। তবে অনলাইনে বিও হিসাব খোলার ক্ষেত্রে এ ফি হবে সর্বজনীন। মাত্র ৪৫০ টাকা। অর্থাৎ মাত্র ৪৫০ টাকা দিয়ে বিনিয়োগকারীরা ঘরে বসে তাঁদের পছন্দের ব্রোকারেজ হাউসে বিও হিসাব খোলার সুযোগ পাচ্ছেন।

শেয়ারবাজার থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন