বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কার্যক্রম শুরুর ৯ মাসের মাথায় এসে শিল্প মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে নতুন ব্যবসার কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ করতে হলো বহুজাতিক লাফার্জহোলসিমকে। জানা গেছে, স্থানীয় চুনাপাথর আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীদের আপত্তি ও অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় এ নির্দেশ দিয়েছে। স্থানীয় মানুষের অভিযোগ, লাফার্জহোলসিম সিমেন্ট তৈরির জন্য কম কর দিয়ে ভারত থেকে চুনাপাথর এনে তা বাণিজ্যিকভাবে বাজারজাত করছে। এতে স্থানীয় পাথর আমদানিকারকদের ব্যবসা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কারণ, পাথর আমদানিকারকদের আমদানির ক্ষেত্রে করভার বেশি। তাই লাফার্জহোলসিম এ ব্যবসা শুরুর পর থেকে স্থানীয় পাথর আমদানিকারক ও ব্যবসায়ীরা এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করে আসছিলেন।

শিল্প মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. মনিরুজ্জামান স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, ক্রসবর্ডার কনভেয়ার বেল্টের মাধ্যমে ভারত থেকে আনা চুনাপাথর থেকে সিমেন্ট ও ক্লিংকার উৎপাদন ছাড়া অবৈধভাবে ক্রাশিং করে নতুন পণ্য খোয়া বানিয়ে খোলাবাজারে বিক্রি অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।

জানতে চাইলে লাফার্জহোলসিমের জনসংযোগ বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, ‘২০ সেপ্টেম্বর শিল্প মন্ত্রণালয়ের চিঠি আমরা পেয়েছি। এখন আমরা কোম্পানির আইনজীবীদের সঙ্গে চিঠির বিষয় নিয়ে পর্যালোচনা করছি। লাফার্জহোলসিম এ দেশে সুনামের সঙ্গে আইন মেনে ব্যবসা কার্যক্রম পরিচালনা করছে।’ এর বাইরে প্রতিষ্ঠানটি এ নিয়ে আর বেশি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

শেয়ারবাজার থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন