উত্তরা ব্যাংক শেয়ারধারীদের জন্য ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে সাড়ে ১২ শতাংশ নগদ আর সাড়ে ১২ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ। আজ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদের সভায় লভ্যাংশের এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ২০২০ সালের ডিসেম্বরে সমাপ্ত আর্থিক বছরের জন্য এ লভ্যাংশ পাবেন বিনিয়োগকারীরা।
২০২০ সালে নগদ ও বোনাস মিলিয়ে ২৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করা হলেও তা আগের বছরের চেয়ে কম। ২০১৯ সালে ব্যাংকটি শেয়ারধারীদের ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছিল, যার মধ্যে ২৩ শতাংশই ছিল বোনাস আর ৭ শতাংশ ছিল নগদ। আগের বছরের চেয়ে লভ্যাংশের পরিমাণ কমলেও আয় বেড়েছে প্রায় ১৫ শতাংশ। ২০২০ সাল শেষে উত্তরা ব্যাংকের সমন্বিত শেয়ারপ্রতি আয় বা ইপিএস দাঁড়িয়েছে ৪ টাকা ২৮ পয়সা। গত বছর এ আয় ছিল ৩ টাকা ৭৩ পয়সা।

বিজ্ঞাপন
২৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করা হলেও তা আগের বছরের চেয়ে কম। ২০১৯ সালে ব্যাংকটি শেয়ারধারীদের ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ দিয়েছিল।

কোম্পানির ঘোষিত লভ্যাংশের দাবিদার নির্ধারণের জন্য রেকর্ড তারিখ ঠিক করা হয়েছে ২ মে। ওই দিন কোম্পানিটির শেয়ার যাঁর হাতে থাকবে, তিনিই লভ্যাংশ পাবেন। আর ঘোষিত লভ্যাংশ অনুমোদনের জন্য বার্ষিক সাধারণ সভা বা এজিএমের তারিখ ঠিক করা হয়েছে ২০ মে। এজিএমে অনুমোদনের পরই ঘোষিত লভ্যাংশ শেয়ারধারীদের মধ্যে বিতরণ করা হবে।
এদিকে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) আজ ব্যাংকটির শেয়ারের দাম ছিল ২৪ টাকা ৬০ পয়সা। আগের দিনের চেয়ে ১০ পয়সা দাম কমেছে এদিন।

শেয়ারবাজার থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন