default-image

চলতি বছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) সরকারি কর্মকর্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি ও বিভিন্ন জেলায় নতুন সার্কিট হাউস নির্মাণসহ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীনে ১৪টি প্রকল্প আছে। এসব প্রকল্পে ৫০২ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অর্থবছরের পুরো ১২ মাসে এ টাকা খরচ করে প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের কথা। কিন্তু অর্থবছরের তিন মাস পেরিয়ে গেছে। অথচ সাকল্যে খরচ হয়েছে মাত্র ৩২ লাখ টাকা। বাস্তবায়ন হার মাত্র দশমিক ০৬ শতাংশ।

করোনায় গত ২০১৯–২০ অর্থবছরের শেষ প্রান্তিক অর্থাৎ এপ্রিল-মে মাসে উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ প্রায় বন্ধ ছিল। কিন্তু চলতি ২০২০–২১ অর্থবছরের শুরুতে অর্থনীতির দুয়ার খুলে গেছে। ফলে উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর কাজের অগ্রগতিও ভালো হওয়ার কথা। কিন্তু এডিপি বাস্তবায়ন নিয়ে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) তিন মাসের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে হতাশাজনক সব তথ্য। এতে দেখা গেছে, ছয়টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগ বরাদ্দের ১ শতাংশ টাকাও খরচ করতে পারেনি। এ তালিকায় রয়েছে জননিরাপত্তা বিভাগ, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ, আইন ও বিচার বিভাগ, বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়।

সবচেয়ে খারাপ অবস্থা জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের। এর অধীনে এডিপিতে মাত্র একটি প্রকল্প আছে। ‘স্ট্রেনদেনিং পার্লামেন্টস ক্যাপাসিটি ইনটু পপুলেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইস্যুজ’ নামের ওই প্রকল্পের জন্য এ বছর ৮৩ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়। কিন্তু তিন মাসেও জাতীয় সংসদ সচিবালয় খরচের খাতাই খোলেনি বা খুলতে পারেনি।

বিজ্ঞাপন

সরকারি কর্ম কমিশনের দুটি প্রকল্পে বরাদ্দ আছে প্রায় ২৭ কোটি টাকা। তিন মাসে খরচ মাত্র ৪ লাখ টাকা। আইন ও বিচার বিভাগের অধীনে ছয়টি প্রকল্প বাস্তবায়নে এবার বরাদ্দ আছে সাড়ে তিন শ কোটি টাকা। অথচ জুলাই-সেপ্টেম্বর তিন মাসে খরচ হয়েছে মাত্র ১ কোটি ৭২ লাখ টাকা।

জননিরাপত্তা বিভাগের ৩৩টি প্রকল্পের অনুকূলে বরাদ্দ আছে ১ হাজার ৭৪৩ কোটি টাকা। এত প্রকল্প থাকার পরও খরচ হয়েছে মাত্র সাড়ে সাত কোটি টাকা। বাস্তবায়ন হার মাত্র দশমিক ৪৩ শতাংশ। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) জন্য আগারগাঁওয়ে রাজস্ব ভবন নির্মাণসহ অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের (আইআরডি) ছয় প্রকল্পে বরাদ্দ ৪৮৩ কোটি টাকা। এক কোটি টাকাও খরচ করা সম্ভব হয়নি।

এবার দেখা যাক, তিন মাসের হিসাবে সবচেয়ে ভালো করেছে কোন কোন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ। তিনটি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের বাস্তবায়ন হার ২০ শতাংশের বেশি। এর মধ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয় বরাদ্দের ২৫ শতাংশ খরচ করেছে। মন্ত্রণালয়টি ৯টি প্রকল্পে ২২৭ কোটি টাকা খরচ করেছে। জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ খরচ করেছে ৬৬৫ কোটি টাকা, যা বরাদ্দের সাড়ে ২২ শতাংশ। এ ছাড়া নির্বাচন কমিশন সচিবালয় ১২৭ কোটি টাকা খরচ করেছে। বাস্তবায়ন হার প্রায় ২১ শতাংশ।

গত জুলাই-সেপ্টেম্বর মাসে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ সব মিলিয়ে ১৭ হাজার ৩০১ কোটি টাকা খরচ করেছে। সব মিলিয়ে প্রথম তিন মাসে এডিপি বাস্তবায়ন হার ৮ দশমিক ০৬ শতাংশ। চলতি অর্থবছরে ২ লাখ ১৪ হাজার ৬১১ কোটি টাকার এডিপি নেওয়া হয়েছে। এতে মোট প্রকল্প রয়েছে ১ হাজার ৬৭৩টি।

মন্তব্য পড়ুন 0