default-image

অবশেষে ১০০ বিলিয়ন ডলার সম্পদের তালিকায় ঢুকলেন মার্কিন বিনিয়োগগুরু ওয়ারেন বাফেট। এ বছর এখন পর্যন্ত রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে বাফেটের কোম্পানি বার্কশায়ার হ্যাথওয়ের শেয়ারের দর, যা বাফেটকে নিয়ে গেছে এই ‘এক্সক্লুসিভ ১০০ বিলিয়ন’ ক্লাবে।

বাফেটের আগে এই ক্লাবে রয়েছেন বিল গেটস, জেফ বেজোস ও ইলন মাস্ক। এই ১০০ বিলিয়ন ডলার ক্লাবের আরেক সদস্য হলেন প্যারিসভিত্তিক বিলাসবহুল পণ্য প্রস্তুতকারক এলভিএমএইচ কোম্পানির চেয়ারম্যান বার্নার্ড আরনল্ট।

গতকাল বুধবার বাফেটের সম্পদের পরিমাণ প্রথমবারের মতো ১০০ বিলিয়ন বা ১০ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়েছে। এ বছর তাঁর শেয়ারের দর বেড়েছে ১৫ শতাংশ। কয়েক দশক ধরেই বিশ্বের ধনীর তালিকায় অন্যতম শীর্ষস্থানে রয়েছেন বাফেট, তবে এর আগে কখনোই তাঁর সম্পদ ১০০ বিলিয়ন ডলার ছুঁতে পারেনি। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

তার কারণ কেবল সম্পদেই নয়, দানশীলতায় অন্যতম শীর্ষস্থানে রয়েছেন ৯০ বছর বয়সী বাফেট। বিশ্বের সবচেয়ে সফল বিনিয়োগকারী হিসেবে সম্মানিত বাফেট তার কোটি কোটি সম্পদ দাতব্য প্রতিষ্ঠানের হাতে তুলে দিয়েছেন। ২০০০ সাল থেকে এখন পর্যন্ত বার্কশায়ার হ্যাথওয়ে ৩৭ বিলিয়ন বা ৩ হাজার ৭০০ কোটি ডলারেরও বেশি অনুদান দিয়েছেন বাফেট। দানের লক্ষ্য নিয়ে ১০ বছর আগে ওই বছর বিল গেটস ও স্ত্রী মেলিন্ডা গেটস এবং ওয়ারেন বাফেট নেন এক অভিনব উদ্যোগ—‘গিভিং প্লেজ’। অর্থাৎ দানের অঙ্গীকার।

ফোর্বসের রিয়েল টাইম বিলিয়নিয়ারদের তালিকা অনুসারে ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ এই তালিকা থেকে পিছলে পড়েছেন।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন