বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

চলতি বছর বাসমতি ছাড়া অন্যান্য চালের রপ্তানি আগের বছরের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে ১ কোটি ৮০ লাখ টন হতে পারে। তবে নিতিন গুপ্তের ভাষ্যমতে, সবচেয়ে উন্নত মানের চাল বাসমতীর রপ্তানি স্থিতিশীল থাকবে—৪০ লাখ টন।

যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি মন্ত্রণালয়ের পূর্বাভাসে বলা হয়, চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে বিশ্বে ৪ কোটি ৮৫ লাখ টন চাল রপ্তানি হবে।

যত বাধা লজিস্টিকে

এ বছরের মার্চ থেকে বিশ্বে চালের চাহিদা ব্যাপক বাড়লেও থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনামের তুলনায় ভারতের চালের দাম কমেছে। এদিকে সীমিত অবকাঠামোর কারণে ভারতের চাল রপ্তানির প্রধান বন্দর কাকিনাদা অ্যাঙ্কোরেজে গত বছর ব্যাপক জট তৈরি হয়। ওই সময় জাহাজে চাল তুলতে দীর্ঘ সময় লেগে যেত। তাই অনেক ক্রেতা অন্য দেশের দিকে ঝুঁকে পড়ে।

চাল রপ্তানিকারক ব্রাহ্মনন্দা গুদিমেতলা বলেন, এসব ক্রেতাকে ফিরিয়ে আনতে ভারত অন্যান্য রপ্তানিকারক দেশের তুলনায় প্রতি টনে ১০০ ডলারের বেশি ছাড় দেয়। কিন্তু বন্দর বিলম্বের কারণে ক্রেতা ব্যবসায়ীদের যে বিপুল আর্থিক ক্ষতি গুনতে হয়, তাতে ওই ১০০ ডলারের ছাড় পেয়েও তেমন লাভ হয়নি।

জট কমাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য অন্ধ্রপ্রদেশ চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে কাকিনাদা বন্দরের পার্শ্ববর্তী একটি গভীর সমুদ্রবন্দর চাল–বাণিজ্যের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়।

রাইস এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়ার সভাপতি বি ভি কৃষ্ণ রাও বলেন, ‘গভীর সমুদ্রবন্দর দিয়ে চাল রপ্তানি শুরু হওয়ার পর জাহাজের অপেক্ষার সময় অনেকটাই কমেছে। ফলে যেসব ক্রেতা অন্য দেশে যেতে পারত, তারা আমাদের সঙ্গেই থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য বলছে, চলতি বছরের প্রথম ৭ মাসে দেশটি থেকে ১ কোটি ২৮ লাখ ৪০ হাজার টন চাল রপ্তানি হয়েছে, গত বছরের একই সময়ের তুলনায় তা ৬৫ শতাংশ বেশি। রপ্তানি প্রবৃদ্ধির এ ধারা অব্যাহত রাখতে চায় দেশটি।

কাকিনাদা সিপোর্ট লিমিটেডের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা এম মুরালিধর বলেন, এ বছর গভীর সমুদ্রবন্দর দিয়ে অন্তত ১০ লাখ টন চাল রপ্তানি হতে পারে।

অতিরিক্ত বন্দর সক্ষমতা থাকার পরও চাল রপ্তানিসংক্রান্ত অবকাঠামোর ঘাটতি থাকার কারণে কাকিনাদায় জাহাজে মাল বোঝাইয়ের হার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বন্দরগুলোর তুলনায় কম।

এ মাসে কাকিনাদা বন্দরে চাল বহনকারী একটি জাহাজের ক্যাপ্টেন ফাহিম শামসি বলেন, কাকিনাদায় একটি জাহাজ নোঙর করার পর ৩৩ হাজার টন চাল তুলতে প্রায় ১ মাস সময় লেগে গেছে। অথচ একই পরিমাণ চাল বোঝাই করতে থাইল্যান্ডের লাগে ১১ দিন।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন