default-image

মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ফাইজার ও বায়োএনটেকের পক্ষ থেকে যেদিন কোভিড-১৯-এর টিকার অগ্রগতির সুসংবাদ এল, সেদিনই নিজের কাছে থাকা ৬২ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছেন ফাইজারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) অ্যালবার্ট বোরলা। মার্কেটস ইনসাইডারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। ভ্যাকসিনের খবরে কোম্পানিটির শেয়ারের দর প্রায় ১৫ শতাংশ বেড়ে যায়। তাই বিপুল অঙ্কের লাভ করেছেন বোরলা।

সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে নিবন্ধিত তথ্য অনুসারে, বোরলা এই কোম্পানির ১ লাখ ৩২ হাজার ৫০৮টি শেয়ার ৫৬ লাখ ডলারে বিক্রি করেছেন। অর্থাৎ শেয়ারপ্রতি মূল্য দাঁড়িয়েছে  ৪১ দশমিক ৯৪ ডলার। ৫২ সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দামে রয়েছে ফাইজারের শেয়ার। অর্থাৎ বোরলা এই বছরে ওঠা সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রি করেছেন তাঁর অংশ।

তবে এতে কোনো বিধি লঙ্ঘন হয়নি বলে নিশ্চিত করেছে ফাইজার। বলা হচ্ছে, রোবলার এই শেয়ার বিক্রি একটি নিয়মিত বিধির মাধ্যমে পরিচালিত হয়েছিল,  যা পূর্বনির্ধারিত ট্রেডিং পরিকল্পনার অংশ ছিল। কোম্পানি আইনের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে কর্মীদের অভ্যন্তরীণ স্টক বিক্রি করতে দেওয়া হয়। নথিতে দেখা গেছে, গত ১৯ আগস্ট বোরলা এই বিক্রি করতে চেয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

ফাইজারের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, বোরলার স্টক বিক্রি পরিকল্পনার অংশ ছিল। এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠান তার অভ্যন্তরীণ মূল শেয়ারধারীদের এই অনুমোদন দেয়। বোরলার কাছে এখনো কোম্পানির ৮১ হাজার ৮১২টি শেয়ার রয়েছে।

গত সোমবার ফাইজার ও বায়োএনটেকের পক্ষ থেকে বলা হয়, কোভিড-১৯ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত সুরক্ষা দিতে সক্ষম তাদের টিকা। টিকার তৃতীয় ধাপের পরীক্ষার প্রাথমিক বিশ্লেষণে এই সফলতা দেখা গেছে। প্রতিষ্ঠান দুটি জানিয়েছে, টিকা নিয়ে প্রাথমিক বিশ্লেষণে এর ৯০ শতাংশ কার্যকারিতার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। সংস্থাগুলো জানিয়েছে, তারা এখন পর্যন্ত কোনো গুরুতর সুরক্ষা উদ্বেগ খুঁজে পায়নি এবং এই মাসের শেষের দিকে যুক্তরাষ্ট্রে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদনের প্রত্যাশা করছে।

মন্তব্য পড়ুন 0