বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জরিপ ভোট পোস্ট করার পর মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যে সাত লাখেরও বেশি অনুসারী প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন। প্রায় ৫৬ শতাংশ উত্তরদাতা শেয়ার বিক্রির প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। রয়টার্সের হিসাব অনুযায়ী, ৩০ জুন পর্যন্ত টেসলায় মাস্কের শেয়ার আছে ১৭ কোটি ৫ লাখ। গত শুক্রবারের শেষ লেনদেনের দাম ধরলে এর ১০ শতাংশ শেয়ার মানে ২ হাজার ১০০ কোটি ডলার।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, তাঁকে কর দেওয়ার জন্য উল্লেখযোগ্যসংখ্যক শেয়ার বিক্রি করতে হতে পারে।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সামাজিক এবং জলবায়ু পরিবর্তন অ্যাজেন্ডায় সহায়তা করার জন্য বিলিয়নিয়ারের সম্পদে কর দেওয়ার প্রস্তাব করেছেন। আর এর পর মাস্কের এমন টুইটার পোস্ট এল। তিনি টুইটারে বিলিয়নিয়ারদের ট্যাক্সের সমালোচনা করেছেন।

ইলন মাস্ক বলেন, ‘দেখুন, আমি কোথাও থেকে নগদ বেতন বা বোনাস নিই না।’ মাস্ক বলেছিলেন, ‘আমার কাছে শুধু স্টক আছে। তাই ব্যক্তিগতভাবে কর দেওয়ার একমাত্র উপায় হলো, স্টক বিক্রি করা।’

ইলন মাস্কের ভাই কিম্বলসহ টেসলা বোর্ডের সদস্যরা সম্প্রতি বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতার শেয়ার বিক্রি করেছেন। কিম্বল মাস্ক টেসলার ৮৮ হাজার ৫০০টি শেয়ার বিক্রি করেছেন। বোর্ডের সহযোগী সদস্য ইরা এহরেনপ্রিস ২০ কোটি ডলারেরও বেশি মূল্যের শেয়ার বিক্রি করেছেন।

মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের তথ্র অনুযায়ী বর্তমানে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ইলন মাস্ক। তার সম্পদের পরিমাণ ৩০ হাজার কোটি ডলার ছাড়িয়েছে। এমনকি অন্যতম শীর্ষ ধনী বিল গেটস ও ওয়ারেন বাফেটর সম্পদ যোগ করলে যা হয় তার চেয়েও বেশি সম্পদ ইলনের। ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়ার ইনডেক্স অনুযায়ী ৩৪ জন ধনকুবেরের সমান ইলনের একার সম্পদ।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন