default-image

সিঙ্গেলস ডেতে আবারও বিক্রির রেকর্ড গড়ল আলিবাবাসহ চীনা ই-কমার্স কোম্পানিগুলো। এবার মহামারির কারণে বিক্রি তিন দিন আগে শুরু করে আলিবাবা। তাতে কাজও দেয়। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সকালই আলিবাবা জানায়, এবার প্রায় ৭ হাজার ৫০০ কোটি ডলারের পণ্য বিক্রি হয়েছে তাদের।

এবার সিঙ্গেলস ডেতে গত বছরের তুলনায় ২৬ শতাংশ বেশি বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছে আলিবাবা।

বিক্রির এই পরিমাণ অন্তত দুটি কারণে তাৎপর্যপূর্ণ। প্রথমত, মহামারি কাটিয়ে উঠে চীনা অর্থনীতিতে কতটা আত্মবিশ্বাস ফিরে এসেছে, সেটা বোঝার ক্ষেত্রে এই বিক্রিকে মানদণ্ড হিসেবে মানছেন বিশ্লেষকেরা। দ্বিতীয়ত, এমন সময়ে এই দিবস এল, যখন আলিবাবা ও তার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা চীনা কমিউনিস্ট পার্টি সরকারের রোষানলে পড়েছে।

বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে বিশ্বের অন্যান্য অর্থনীতি খাবি খেলেও চীনা অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে। জুলাই-সেপ্টেম্বর প্রান্তিকে তাদের প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৪ দশমিক ৯ শতাংশ। ফলে অর্থনীতিবিদ ও বিশ্লেষকেরা এই সিঙ্গেলস ডের জন্য অপেক্ষা করছিলেন ক্রেতাদের আস্থা কতটা ফিরে এসেছে তা বোঝার জন্য। বিক্রির যে পরিসংখ্যান তাতে চীনা অর্থনীতি উতরে গেছে বলেই মনে করছেন তাঁরা।

বিজ্ঞাপন

আরেকটি কারণে মহা বিক্রিতে রসদ জুগিয়েছে বলে মনে করেন বিশ্লেষকেরা। আন্তর্জাতিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা থাকায় চীনাদের বিদেশে যাওয়া বন্ধ। স্বাস্থ্যগত কারণেও অনেকে বিদেশে যাচ্ছেন না। এই পরিস্থিতিতে তারা সেই খেদ মেটাতে কেনাকাটায় মরিয়া হয়ে উঠেছে, বিশ্লেষকেরা যার নাম দিয়েছেন রিভেঞ্জ স্পেন্ডিং বা প্রতিশোধমূলক কেনাকাটা। বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান অলিভার ওয়াইম্যানের এক গবেষণায় দেখা গেছে, ৮৬ শতাংশ চীনা নাগরিক গত বছর এই দিনে যত ব্যয় করেছেন এবারও অন্তত ঠিক ততটা বা তার চেয়ে বেশি ব্যয় করতে ইচ্ছুক।

বৈশ্বিক বিভিন্ন ব্র্যান্ডগুলোও দিনটির জন্য মুখিয়ে ছিল। অনেক দিনের মন্দ বিক্রির পর তারা আশা করছিল, এই দিনে ক্ষতিটা কাটিয়ে ওঠা যাবে। তাদের সেই আশাও পূর্ণ হয়েছে।

জ্যাক মার দুরবস্থা

এদিকে সিঙ্গেল ডেতে আলিবাবা বিক্রির নতুন রেকর্ড গড়লেও কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা চীনা সরকারের কোপানলে পড়েছেন। অ্যান্ট ফাইন্যান্সিয়ালের যে রেকর্ড আইপিও বাজারে আসার কথা ছিল, সেটা আপাতত বন্ধ। এই আইপিও বাজারে আসলে জ্যাক মা আবারও চীনের শীর্ষ ধনী হতেন। কিন্তু সবকিছু পরিকল্পনামাফিক হলো না।

হংকং ও সাংহাই স্টক এক্সচেঞ্জে ৩৪ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলারের প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) আসার কথা ছিল অ্যান্ট ফাইন্যান্সিয়ালের। বাস্তবায়িত হলে সেটি হতো বিশ্বের বৃহত্তম আইপিও। চীনের আর্থিক খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা শেষ মুহূর্তে বাগড়া দেওয়ায় শেষমেশ আইপিও আর বাজারে আসেনি। অ্যান্ট ফাইন্যান্সিয়ালে জ্যাক মার প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি ডলারের অংশীদারি আছে, তাতে জ্যাক মার সম্পদের পরিমাণ দাঁড়াত ৮ হাজার কোটি ডলার।

default-image

বৃহৎ অনলাইন কোম্পানিগুলোর একচেটিয়া ব্যবসার ওপর নিয়ন্ত্রণ আনতে যাচ্ছে চীনা সরকার। বেইজিংয়ে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলোর ক্রমবর্ধমান প্রভাবের কারণে উদ্বেগ সৃষ্টি হওয়ায় নতুনভাবে এই নিয়ন্ত্রণ আরোপ করছে সরকার। নতুন নিয়মে ই-কমার্স জায়ান্ট আলিবাবা, অ্যান্ট গ্রুপ, টেনসেন্টের পাশাপাশি খাদ্য বিতরণ প্ল্যাটফর্ম মেটুয়ানের মতো টেক কোম্পানিগুলো বিপাকে পড়তে পারে। তবে সিঙ্গেলস ডের বিক্রি দেখে জ্যাক মার দুঃখ কিছুটা ঘুচতে পারে।

বাংলাদেশে দারাজের রমরমা

এদিকে সিঙ্গেলস ডেতে বাংলাদেশে আলিবাবার মালিকানাধীন অনলাইন বিক্রয় কেন্দ্র দারাজেরও রমরমা ব্যবসা হয়েছে। গতকাল প্রথম ঘণ্টাতেই তারা ২৫ কোটি টাকার বিক্রি করেছে। গত বছর এই দিনে প্রথম ৪৫ মিনিটে যে বিক্রি হয়েছিল, এবার ১৫ মিনিটেই তা ছাড়িয়ে গেছে বলে জানিয়েছে দারাজ। তবে কোম্পানির বিধি অনুসারে বিক্রির পুরো তথ্য প্রকাশ করেনি দারাজ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0