default-image

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর আমেরিকায় সবচেয়ে বড় অবকাঠামো উন্নয়নের ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ২ ট্রিলিয়ন ডলারের এই ফেডারেল কর্মসূচিতে অর্থনৈতিক চাঞ্চল্য ও ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছেন নতুন প্রেসিডেন্ট। আর প্রেসিডেন্টের এসব সিদ্ধান্তে রমরমা শেয়ারবাজার। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রথমবারের মতো ৪০০০ পয়েন্টের সীমা পার হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের এসঅ্যান্ডপি ৫০০ সূচক। বেড়েছে অন্য সূচকও। আর এই প্রভাবে আজ শুক্রবার ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখাচ্ছে এশিয়ার শেয়ারবাজার। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ২ দশমিক ৩ ট্রিলিয়ন ডলারের নতুন অবকাঠামোগত ব্যয় পরিকল্পনা এবং অর্থনীতি সম্পর্কে ক্রমবর্ধমান আশাবাদ বিনিয়োগকারীরা সমর্থন করেছেন। এশিয়ার শেয়ারবাজারে, আজ জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার পুঁজিবাজারে সূচক ১ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। ইতিবাচক চীনের সাংহাই সূচকও। হংকং ও অস্ট্রেলিয়ার পুঁজিবাজারের সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে।

গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের এসঅ্যান্ডপি ৫০০ সূচক বাড়ে ব্যাপক। এই সূচক নতুন বছরে এখন পর্যন্ত ৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে নাসডাক সূচকের ব্যাপক উত্থান দেখা গিয়েছিল ফেব্রুয়ারিতে। সে তুলনায় এখন সূচকটির অবস্থান কিছুটা কমে রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

গত বুধবার অর্থনৈতিক উন্নয়নের মহাপরিকল্পনায় বাইডেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ৩২ হাজার কিলোমিটার সড়ক-মহাসড়কের উন্নয়নকাজে হাত দেওয়া হবে। সমগ্র দেশে কয়েক হাজার ব্রিজ নির্মাণ-পুনর্নির্মাণ হবে। জনপরিবহনে বিপুল অঙ্কের ফেডারেল বরাদ্দ দেওয়া হবে। বড় অঙ্কের ফেডারেল অর্থ বিনিয়োগে ভালো মজুরির চাকরি সৃষ্টি হবে। যুক্তরাষ্ট্রের ঐতিহাসিক এই উন্নয়ন ও বিনিয়োগ পরিকল্পনার মধ্যে আরও রয়েছে ঊর্ধ্বগতির ব্রডব্যান্ড, নতুন স্কুল ভবন নির্মাণ-সংস্কার, পাওয়ার লাইনের উন্নয়ন প্রভৃতি।

বাইডেন জানান, এই বিনিয়োগের জন্য করপোরেট ট্যাক্স বৃদ্ধি করা হবে। যেসব পরিবারের আয় বছরে চার লাখের কম, তাদের ওপর কোনো কর বৃদ্ধি করা হবে না। বিশ্লেষকেরা মনে করছেন, পুঁজিবাজারের বিনিয়োগকারীরা বাইডেনের এই মহাপরিকল্পনাকে স্বাগত জানিয়েছেন।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন