default-image

বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী ওয়ারেন বাফেট বলেছেন, তাঁর সংস্থা বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ে চারটি বৃহত্তম মার্কিন বিমান সংস্থাতে থাকা এর সব শেয়ার বিক্রি করে দিয়েছে। বাফেট এটাও বলেছেন, বিমান সংস্থায় বিনিয়োগ করা তাঁর ভুল হয়েছে। 

শনিবার শেয়ারহোল্ডারদের সঙ্গে ভারচুয়ালি করা বার্ষিক সভায় দেওয়া বক্তব্যে বাফেট বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে 'দুনিয়া বদলে গেছে'।


চলতি বছরের প্রথম তিন মাসে বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ের লোকসান হয়েছে রেকর্ড ৫ হাজার কোটি ডলার। গতকাল এই তথ্য প্রকাশ করে কোম্পানিটি। কিছুক্ষণ পরই ওই মন্তব্য করেন বাফেট। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।


বার্ষিক প্রতিবেদন ও সংস্থার ফাইল অনুযায়ী, ডেল্টা এয়ারলাইনসে ১১ শতাংশ, আমেরিকান এয়ারলাইনসে ১০ শতাংশ, সাউথ ওয়েস্ট এয়ারলাইনসে ১০ শতাংশ এবং ইউনাইটেড এয়ারলাইনসে ৯ শতাংশ অংশীদারিত্ব ছিল বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ের।
সংস্থাটি বছরের পর বছর বিমানশিল্পকে এড়িয়ে চললেও ২০১৬ সালে চারটি বিমান সংস্থায় বিনিয়োগ শুরু করে।


ওই সভায় বাফেট বলেন, 'আমরা বিমানশিল্পের ব্যবসায়ের নিরিখে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা মূলত যথেষ্ট পরিমাণে লোকসানের পরও এই ব্যবসা থেকে অর্থ বের করেছিলাম। তবে আমরা এমন কোনো সংস্থাকে তহবিল দেব না ... যেখানে আমরা বুঝতে পারছি যে এটি ভবিষ্যতে আমাদের অর্থ কেবল নষ্টই করবে।'


বাফেট এও জানান, মহামারি আঘাত হানার আগে তিনি আরও বিমান সংস্থায় বিনিয়োগ করার কথা ভাবছিলেন। তিনি বলেন, এটি চাহিদা কমে যাওয়ার একটি ধাক্কা। মূলত করোনাভাইরাসের কারণে দেশের মধ্যে বিমানে চলাচল এখন একেবারে বন্ধই রয়েছে।

করোনাভাইরাস মহামারির প্রাদুর্ভাবে ধসে পড়েছে মার্কিন ভ্রমণ শিল্প। বিমান সংস্থাগুলো লাখ লাখ ফ্লাইট বাতিল করেছে। অনেকে ছিটকে পড়েছে ব্যবসা থেকেও।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0