বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডেয়েট (ডব্লিউটিআই) ক্রুড অয়েল মানে জ্বালানি তেলের দাম প্রতি ব্যারেল ১ দশমিক শূন্য ৪ ডলার বা ১ দশমিক ৪৫ শতাংশ বেড়ে ৭১ দশমিক ৫১ ডলারে উঠেছে। আর ব্রেন্ট ক্রুড অয়েলের দাম প্রতি ব্যারেল দশমিক ৯৪ সেন্ট বা ১ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৭৫ দশমিক ৩০ ডলারে উন্নীত হয়েছে।
আমেরিকান পেট্রোলিয়াম ইনস্টিটিউটের (এপিআই) তথ্যানুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে ১৭ সেপ্টেম্বর সমাপ্ত সপ্তাহে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের মজুত ৬১ লাখ ব্যারেল কমেছে। তবে আরও বেশি কমার আশঙ্কা করা হয়েছিল।

প্যারিসভিত্তিক ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সি বা আন্তর্জাতিক জ্বালানি সংস্থা (আইইএ) গত জুলাইয়ের শুরুতে এক পূর্বাভাসে বলেছে, বিশ্ববাজারে তেলের চাহিদা আগামী বছরের শেষ দিকে আবার করোনাভাইরাস শুরু হওয়ার আগের অবস্থায় ফিরে যাবে। সংস্থাটির (আইইএ) মতে, চলতি ২০২১ সালে বিশ্ববাজারে তেলের চাহিদা মোটামুটি বাড়বে। তবে আগামী বছর জ্বালানি তেলের দৈনিক চাহিদা বেড়ে ১০ কোটি ৬ লাখ ব্যারেলে উন্নীত হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের বহুজাতিক বিনিয়োগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকসও মাস তিনেক আগে তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, কোভিড-১৯-এর কারণে বৈশ্বিক সরবরাহব্যবস্থায় যে প্রতিবন্ধকতা দেখা গিয়েছিল, তা দূর হচ্ছে। পাশাপাশি দেশে দেশে দ্রুত অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া গতি পেয়েছে। ফলে বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়ছে।

সূত্র: রয়টার্স

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন