default-image

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) নতুন মহাপরিচালক মনোনীত হয়েছেন এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা। দুটি কারণে তাঁর এই নিয়োগ উল্লেখযোগ্য মনে করছেন বিশ্লেষকেরা—প্রথম নারী ও আফ্রিকান হিসেবে বাণিজ্যের শীর্ষ সংস্থার সর্বোচ্চ পদ লাভ।

তবে ইওয়েলা এই প্রথম ইতিহাস নির্মাণ করছেন না। নাইজেরিয়ায় জন্মগ্রহণ করা এই নারী ১৯৭৬ সালে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করার পর এমআইটি থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। এরপর প্রথম নারী হিসেবে তিনি নাইজেরিয়ার অর্থ ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হন। বিশ্বব্যাংকে ২৫ বছর কাজ করেছেন তিনি। এ ছাড়া প্রথম নারী হিসেবে বিশ্বব্যাংকের সভাপতি হওয়ার দৌড়ে শামিল হয়েছিলেন। সিএনবিসি সূত্রে এই খবর পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন
প্রথম নারী ও আফ্রিকান হিসেবে বাণিজ্যের শীর্ষ সংস্থার সর্বোচ্চ পদে বসছেন তিনি। বিশ্বব্যাংকে ২৫ বছর কাজ করেছেন এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা। প্রথম নারী হিসেবে বিশ্বব্যাংকের সভাপতি হওয়ার দৌড়ে শামিল হয়েছিলেন।

গত অক্টোবরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া সব ভৌগোলিক অঞ্চল এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলার প্রতি সমর্থন জানায়। তবে নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাঁর প্রতি সমর্থন জানানোর পর ইওয়েলার পথ পরিষ্কার হয়ে যায়।

চীনের সঙ্গে বাণিজ্যযুদ্ধ শুরু করার পর থেকেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলে আসছিল, বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার নিয়ম পাল্টাতে হবে। এর সঙ্গে ইউরোপও গলা মেলায়। তবে কীভাবে এই পরিবর্তন আসবে, তা নিয়ে মতৈক্য হয়নি। এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা বলেছেন, ‘বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা অনেকটা পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। এমন এক সময়ে এটি হলো, যখন সংস্থাটির নিয়ম-কানুন নতুন বাস্তবতার নিরিখে বদলানোর প্রয়োজন হয়ে পড়েছে-ই-কমার্স ও ডিজিটাল অর্থনীতি।’

লক্ষ্য হিসেবে তিনি বাণিজ্যে নারীর অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে জোর দেবেন। নারীদের মালিকানাধীন ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলো আনুষ্ঠানিক বাতাবরণে নিয়ে আসাও তাঁর আরেক লক্ষ্য।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন