default-image

মহামারির ধাক্কা সামলে ভারতের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে, এমনটাই জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। শুধু তা-ই নয়, এই অর্থনৈতিক বিকাশে মুগ্ধ তারা। ২০২০-২১ অর্থবছরে ভারতের জিডিপি সংকোচন হলেও ২০২১-২২ অর্থবছরে ভারতের প্রবৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ৫ থেকে ১২ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যে থাকবে।

সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়া ফোকাস প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। কয়েক দিন পরেই বৈঠকে বসবে বিশ্বব্যাংক ও আইএমএফ। এর আগে বিশ্বব্যাংক ভারতের জন্য সুখবর দিল।

বিশ্বব্যাংক জানিয়েছে, গত আর্থিক বছরের সঙ্গে বর্তমান বছরের তুলনা করলেই বোঝা যাবে, ভারত কতটা উন্নতি করছে। ২০১৭ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৮ দশমিক ৩ শতাংশ। গত আর্থিক বছরে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ কমে গিয়েছিল দেশের অর্থনৈতিক কার্যকলাপ। ভারতের এই উন্নতিকে এককথায় ‘বিস্ময়কর’ আখ্যা দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহামারির সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়েছিল ভারতীয় অর্থনীতিতে। বিনিয়োগ বন্ধ হয়ে যায়। ভোগ্যপণ্যের বিক্রি থেকে রপ্তানি—সবকিছুই ধাক্কা খায়। তারপর কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করতে গিয়েও কোষাগারে চাপ পড়ে। ফলে অর্থনৈতিক বিকাশ থেমে গিয়েছিল।

বিজ্ঞাপন
বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন