বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

২০০৮ সালের আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যস্ফীতি হয়েছিল ৫ দশমিক ৪ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রে মূল্যস্ফীতি যদি ২ শতাংশের মধ্যে রাখা যায়, তাহলে তা ভালো অর্থনৈতিক পরিস্থিতিকেই নির্দেশ করে। ফেডারেল রিজার্ভ সে লক্ষ্যই নেয়। তবে সে লক্ষ্য ছাড়িয়ে যায় গত এপ্রিলেই। এপ্রিলে এটি আগের বছরের তুলনায় বেড়েছিল ৩ শতাংশ। অবশ্য ২০২০ সালের আগস্টে এক বৈঠকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ঘোষণা করেছিল যে সর্বাধিক কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে পারলে মুদ্রাস্ফীতি ২ শতাংশের ওপরে যেতে পারে। তবে শ্রমিকসংকটও তীব্র আকার ধারণ করেছে যুক্তরাষ্ট্রে।

ন্যাশনাল ফেডারেশন অব ইন্ডিপেনডেন্ট বিজনেসের এক জরিপে দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের অর্ধেকেরও বেশি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা বলেছেন যে সেপ্টেম্বরে, তাদের যে পরিমাণ চাকরি খালি হয়েছে, তারা তা পূরণ করতে পারবে না।

মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যস্ফীতির হার দাঁড়ায় ৫ শতাংশে। জুনে আরও বেড়ে দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৪ শতাংশে। আগস্টে পণ্যের মূল্য আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। সেপ্টেম্বরে আবার বাড়ল মূল্যস্ফীতি।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন