default-image

অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার করতে নতুন করে ভাবছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি চাইছেন করপোরেট করের হার ২১ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৮ শতাংশ করতে। আর বাইডেন প্রশাসনের এই পরিকল্পনাকে সমর্থন করছেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী ই–কমার্স জায়ান্ট আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। কারণ, এই রাজস্ব মার্কিন অবকাঠামো যেমন রাস্তাঘাট, বন্দর, পানি সরবরাহের পাইপ ও ইন্টারনেট সেবার উন্নয়নে ব্যয় হবে। বিবিসি অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট বাইডেন এক বক্তৃতায় বলেন, আমাজনের মতো মার্কিন কোম্পানিগুলোর ওপর খুবই কম কর আরোপ করা হয়েছে। তিনি তা বাড়াতে চান। পরে এক বিবৃতিতে জেফ বেজোস জানান, অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য তিনি এই কর বৃদ্ধিকে সমর্থন করেন। সেই সঙ্গে তিনি ডেমোক্র্যাটস এবং রিপাবলিকানদের একসঙ্গে কাজ করার এবং একটি সমঝোতায় পৌঁছানোর আহ্বান জানান। ওই বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, আমরা স্বীকার করি যে এই বিনিয়োগের জন্য চারদিক থেকে ছাড়ের প্রয়োজন হবে। আমরা করপোরেট করের হার বাড়ানোর পক্ষে।

তবে করপোরেট করহার বাড়ানোর পক্ষে হোয়াইট হাউসের অন্য যুক্তি সমর্থন করেন কি না, তা নিয়ে বিবৃতিতে কিছু উল্লেখ করেননি বেজোস।

বিজ্ঞাপন

ইনস্টিটিউট অব ট্যাক্সেশন অ্যান্ড ইকোনমিক পলিসির তথ্যানুসারে, ২০২০ সালে ৯ দশমিক ৪ শতাংশ কার্যকর ফেডারেল আয়কর হারে কর প্রদান করে আমাজন। সংস্থাটি বলেছে যে গত বছর তারা ১৭০ কোটি ডলার ফেডারেল কর প্রদান করেছে। এ ছাড়া বিনিয়োগ করেছে ৩৫ হাজার কোটি ডলারের। কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়, আমাজনের বিনিয়োগ গবেষণা ও উন্নয়ন ক্রিয়াকলাপের সঙ্গে যুক্ত। আর তাই তা তাদের কর কমাতে সহায়তা করেছে।

এর আগে সম্প্রতি নতুন মার্কিন অর্থমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন পররাষ্ট্র নীতি নিয়ে তাঁর প্রথম বক্তব্যে বৈশ্বিক করপোরেট করের হারের বিষয়টিও উত্থাপন করেন। কম ট্যাক্স আরোপ করে করপোরেশনগুলো প্রলুব্ধ করা প্রতিযোগী দেশগুলোর দৌড় থেকে সরে আসতে চান তিনি।

বিশ্ববাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন