বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাংলায় ৫০ নম্বরের পরীক্ষা হয়। সাধারণত একটি রচনায় ১৫ নম্বর, ভাবসম্প্রসারণে ১০, এককথায় প্রকাশে ৫, অর্থসহ বাক্য রচনায় ৫ ও বাংলা অনুবাদে ১৫ নম্বর। পাঠ্যবইয়ে অনেক রচনা আছে। সব রচনা মুখস্থ করা সম্ভব নয়। সাম্প্রতিক বিষয়, পুলিশ, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক রচনাগুলো যেমন; বাংলাদেশ ও মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধে পুলিশের ভূমিকা, এসডিজি, মেট্রোরেল, নারীর ক্ষমতায়ন বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। রচনা লিখতে পারার অভ্যাস গড়তে হবে। এ জন্য বাসায় পড়ার পাশাপাশি লেখার অনুশীলন করতে হবে। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ব্যাকরণ বইগুলো পড়া যেতে পারে।

ইংরেজিতেও ৫০ নম্বর বরাদ্দ থাকে। সমসাময়িক বিষয়ের ওপর রচনায় ১৫ নম্বর, প্রিপজিশন ৫ নম্বর, ইংরেজি বাগ্​ধারা ৫ নম্বর, লেটার বা আবেদনপত্র ১০ নম্বর ও অনুবাদে ১৫ নম্বর থাকে। যেকোনো চাকরির পরীক্ষায় পিছিয়ে পড়ার অন্যতম কারণ ইংরেজিতে দুর্বলতা। এসআই লিখিত পরীক্ষায় ইংরেজিতে ভালো করতে হলে কম্পোজিশনে গুরুত্ব দিতে হবে। গ্রামার অংশের জন্য পড়তে হবে অষ্টম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির গ্রামার বইগুলো। Tense, Number, Person, Right form of verbs এই অধ্যায়গুলো চর্চা করলে ইংরেজিতে ভালো করা যাবে।

গণিতে ৫০ নম্বর বরাদ্দ রয়েছে। এখানে গসাগু, লসাগু, ভগ্নাংশ, সরলীকরণ, ঐকিক, গড়, অনুপাত ও সমানুপাত, শতকরা ও লাভ-ক্ষতি, সুদকষা, পরিমাপ, ক্ষেত্র ইত্যাদি থেকে সাধারণত প্রশ্ন আসে। গণিতের প্রস্তুতির জন্য সপ্তম, অষ্টম ও নবম-দশম শ্রেণির পাঠ্যবই অনুশীলন করলে প্রস্তুতি পাকাপোক্ত হবে। গণিতে ভালো করার জন্য সুদকষা, দূরুত্ব, লাভ-ক্ষতি, অনুপাত, পরিমিতি ও বৃত্ত অংশ বেশি করে পড়তে হবে।

default-image

সাধারণ জ্ঞান অংশে মোট নম্বর ৫০। সংক্ষিপ্ত প্রশ্নে ১০ নম্বর, টীকায় ১০ নম্বর এবং রচনামূলক প্রশ্নে ৩০ নম্বর থাকে। তবে ইদানীং রচনামূলক প্রশ্ন দুটি দিয়ে ছোট প্রশ্ন ৫টি দেওয়া হয়, যার মানও থাকে ১০। ভাষা আন্দোলন, স্বাধীনতাযুদ্ধ, সংবিধান, জাতীয় চার নেতা, সরকারব্যবস্থা, আইনসভা, বিচার বিভাগ, কৃষি-শিল্প-বাণিজ্য, জাতীয় অর্জনসমূহ, বর্তমান ঢাকা, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, পদ্মা সেতু, বিদ্যুৎ প্রকল্প, নারী অধিকার, স্যাটেলাইট, বঙ্গবন্ধুর লেখা বই, সাহিত্য ও চর্যাপদ, সুন্দরবন, জাতীয় পতাকা-ফল-প্রতীক-সংগীত, লোকসঙ্গীতশিল্পী, কক্সবাজার ও পর্যটনকেন্দ্র, ভিশন-২০২১, উপজাতি এবং সাম্প্রতিক বিষায়াবলির জন্য প্রথমা প্রকাশনীর ‘চলতি ঘটনা’র বিকল্প নেই।

আন্তর্জাতিক প্রশ্নের জন্য বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, বিদ্রোহী ব্যক্তিত্ব, বৈশ্বিক পরিবেশ, চিকিৎসা বিজ্ঞান, রোবট, আন্তর্জাতিক স্থল-নদীবন্দর, হিটলার (যুদ্ধ, উক্তি, মৃত্যু) বিজ্ঞানী, আবিষ্কারক, নেতা, বিখ্যাত ভাষণ, অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান/জোট, জাতিসংঘ, রোগ, মহামারি, আন্তর্জাতিক সংগঠন, বিখ্যাত চুক্তি, বিশ্বযুদ্ধ, গোয়েন্দা সংস্থাসহ সাম্প্রতিক বিশ্ব ইত্যাদি টপিক ধরে ধরে যেকোনো একটি বই থেকে পড়বেন। দৈনন্দিন বিজ্ঞান, বিখ্যাত বিজ্ঞানী ও তাঁদের আবিষ্কার, শক্তি (কাজ, শব্দ, গতি, বিদ্যুৎ, চৌম্বক ইত্যাদি), মহাকর্ষ, গতিবেগ, রশ্মি, তরঙ্গ, প্রতিফলন-প্রতিবিম্ব-বিচ্ছুরণ-বিক্ষেপণ, মৌলিক বর্ণ, রংধনু, ইলেকট্রন-প্রোটন, পৃথিবীপৃষ্ঠে পাহাড়ে রান্না/বায়ুর চাপ ইত্যাদি বিষয়ে ধারণা নিতে হবে।

মনস্তত্ত্ব বিষয়ে ৫০ নম্বরের জন্য ভাষা ও সাহিত্য, সাদৃশ্য বিচার, সাংকেতিক বিন্যাস বা পুনর্বিন্যাস, সম্পর্ক ও বিশেষত্ব নির্ণয়, অসম্ভাব্যতা বিচার, বর্ণবিন্যাস ও শব্দ গঠন ভালোভাবে পড়তে হবে। এ ছাড়া গাণিতিক যুক্তি, জ্যামিতির মৌলিক বিষয়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এবং সাধারণ জ্ঞান থেকে প্রশ্ন করা হয়। এ ছাড়া মুক্তিযুদ্ধের খুঁটিনাটি সব বিষয়ে জানতে হবে।

চাকরি থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন