বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
দেশি-বিদেশি মিলিয়ে ৮০টির বেশি প্রতিষ্ঠান ৫ শতাধিক পদে যোগ্য প্রার্থী খুঁজে নিতে অংশ নেবে এ আয়োজনে। সকাল নয়টা থেকে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত দিনব্যাপী চলবে এ আয়োজন।

আয়োজন চলাকালে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান সরাসরি জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহ, বাছাই ও সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে সঙ্গে সঙ্গেই চাকরির প্রস্তাব দেবে। এ ছাড়া কয়েকটি প্রতিষ্ঠান পরবর্তী সময়ে প্রধান কার্যালয় থেকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিয়োগ দেবে। মেলায় নিয়োগের পাশাপাশি ক্যারিয়ার উন্নয়ন, প্রযুক্তিবিষয়ক বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও সেমিনারের আয়োজন করা হবে।

আয়োজন চলাকালে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান সরাসরি জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহ, বাছাই ও সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে সঙ্গে সঙ্গেই চাকরির প্রস্তাব দেবে।

ফেস্টিভ্যালে চাকরিপ্রার্থীরা দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের নামীদামি কোম্পানি ও প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করে বর্তমান সময়ের যে পরিবর্তন, তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিজেকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে তৈরি করতে পারবেন। আইইউবিএটির প্লেসমেন্ট অফিসের আয়োজনে ন্যাশনাল ক্যারিয়ার ফেস্টিভ্যাল ২০২১-এর ইভেন্ট পার্টনার হিসেবে থাকছে এক্সিলেন্স বাংলাদেশ।

দেশে দক্ষ মানবসম্পদ গড়ার লক্ষ্যে শিক্ষাবিদ এম আলিমউল্যা মিয়ান ১৯৯১ সালে আইইউবিএটি প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে ঢাকার উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরে ২০ বিঘা জমিতে স্থায়ী ক্যাম্পাসে বিশ্ববিদ্যালয়টির কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

খবর থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন